15 Jun 2021, 3:12 AM (GMT)

Coronavirus Stats

29,617,058 Total Cases
377,061 Death Cases
28,345,261 Recovered Cases
Breaking Newsদক্ষিণ ২4 পরগণারাজ্য

অবশেষে তৃণমূল ছাড়লেন ডায়মন্ড হারবারের বিধায়ক দীপক হালদার, বাড়ল বিজেপিতে যোগ দেওয়ার জল্পনা

হেদায়তুল্লা পুরকাইত, ডায়মন্ড হারবার : অবশেষে তৃণমূল কংগ্রেস ছাড়লেন ডায়মন্ড হারবারের বিধায়ক দীপক হালদার। দল ছাড়লেও বিধায়ক পদ তিনি ছাড়েননি। জনগণের পরামর্শ মেনে তাঁদের স্বার্থেই বিধায়ক পদে ইস্তফা দেননি বলে জানিয়েছেন। তবে তিনি রাজনীতি ছাড়বেন না বলে জানিয়ে দিয়েছেন। তাহলে তাঁর গন্তব্য কোথায়? একসময় বিজেপিতে যোগ দেওয়া কলকাতার প্রাক্তন মেয়র শোভন চট্টোপাধ্যায়ের ঘনিষ্ঠ হিসাবে পরিচিত দীপকবাবু। তিনিও বিজেপিতে যোগ দিতে চলেছেন বলে জল্পনা বেড়েছে।
দীপকবাবুকে দীর্ঘদিন কোনও দলের কিংবা সরকারি অনুষ্ঠানে দেখা যায়নি। দীর্ঘদিন কোনও কাজ করতে না দেওয়ার অভিযোগে তিনি তৃণমূল কংগ্রেস দল ছাড়লেন বলে জানিয়েছেন। সোমবার তৃণমূল কংগ্রেস জেলা সভাপতি ও রাজ্য সভাপতিকে স্পিড পোস্টে চিঠি পাঠিয়ে দল ছেড়েছেন ডায়মন্ড হারবারের বিধায়ক দীপক হালদার। তৃণমূল কংগ্রেস ছাড়লেও এখনও পর্যন্ত বিধায়ক পদ ছাড়েননি তিনি। এদিন নিজের দলীয় কার্যালয়ে সাংবাদিক বৈঠক ডেকে দল ছাড়ার কথা জানান দীপকবাবু। সাংবাদিকদের তিনি আক্ষেপের সঙ্গে বলেন,

১৯৮৫ সাল থেকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে যুব কংগ্রেসের রাজনীতি করেছি। তারপর ১৯৯৮ সালে তৃণমূল কংগ্রেস গঠন হওয়ার পর ওই দল করেছি। গত সাড়ে চার বছর ধরে কোনও কাজ করতে পারিনি। সেজন্য সাড়ে চার বছরে নেতৃত্বকে প্রায় সাড়ে চারশো বার জানিয়েও কোনও লাভ হয়নি। যাঁরা তৃণমূল নেত্রীর ঘনিষ্ঠ, তাঁদেরও জানিয়েছি বহুবার। তাঁরা বলেছেন, ওটা কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল। কিছু করার ক্ষমতা নেই তাঁদের।

এদিন কারও নাম না করলেও অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের দিকে ইঙ্গিত করে দিলীপবাবু অভিযোগ তোলেন। সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে তিনি জানান , বাংলার মানুষ এবং ডায়মন্ড হারবারের মানুষ জানে, কার জন্য তৃণমূল কংগ্রেস দলটার ক্ষতি হচ্ছে। দল ছাড়লেও আগামী দিনে তিনি রাজনীতি করে যাবেন বলে জানান। কোনও রাজনৈতিক দলের সঙ্গে যুক্ত না থাকলে যে মানুষের পাশে থেকে কাজ করা যায় না, সেকথা তিনি স্পষ্ট জানান।

মানুষের কাজের জন্য তিনি বিধায়ক পদ ছাড়ছেন না বলে জানান। তিনি আরও জানান, এ নিয়ে ডায়মন্ড হারবার বিধানসভা এলাকার মানুষের সঙ্গে আলোচনা করেছেন। তাঁরা তাঁকে পরামর্শ দিয়েছেন, যেহেতু তিনি জনগণের ভোটে জিতে বিধায়ক পদ পেয়েছেন, সেজন্য ওই পদ যেন না ছাড়েন। তাই জনগণের অনুরোধে বিধায়ক পদ ছাড়বেন না বলে

দিলীপবাবু জানান।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button