25 Sep 2021, 5:54 AM (GMT)

Coronavirus Stats

33,624,419 Total Cases
446,690 Death Cases
32,876,319 Recovered Cases

দক্ষিণ ২4 পরগণা

  • ভরা কোটালে নদীবাঁধ ভেঙে নামখানার বিস্তীর্ণ এলাকা প্লাবিত

    রবীন্দ্রনাথ মণ্ডল ও অমিত মণ্ডল, নামখানা:
    ফের প্লাবিত হল মৌসুনী দ্বীপ। বুধবার সকালে নামখানা মৌসুনী দ্বীপের বালিয়াড়া এলাকায় নদীবাঁধ ভেঙে গ্রামে নোনা জল ঢুকে পড়ে। বিস্তীর্ণ এলাকা জলমগ্ন হয়ে পড়ে। সকালে যখন জোয়ারের জল বাড়ছিল, তখন চিনাই নদীর জলের তোড়ে বালিয়াড়ার ২০০ মিটারেরও বেশি নদীবাঁধ ভেঙে যায়। কয়েক মাস আগেই এই নদীবাঁধ নতুন করে তৈরি করা হয়েছিল বলে স্থানীয় সূত্রে জানা গয়েছে।

    কিন্তু তা কাঁচা মাটি দিয়ে তৈরি করার ফলে বারবার ক্ষতিগ্রস্ত হয় বাঁধগুলি। মঙ্গলবার সকালেও কৌশিকী অমাবস্যার কারণে বালিয়াড়ার নদীবাঁধের অন্য একটি দিক ভেঙে গিয়েছিল। এদিন আবার নতুন করে বাঁধ ভাঙল। প্রতিনিয়ত চিনাই নদী এবং বঙ্গপসাগর ফুঁসছে যেন মৌসুনী দ্বীপকে গ্রাস করতে। এলাকার বাসিন্দারা যথেষ্ট শঙ্কিত। চাষের জমি, মাছের ভেড়ি, পানের বরজসহ অনেক বসতবাড়িতে জল ঢুকে গিয়েছে বলে জানা যায়।

    কিছু কিছু জায়গায় জিওচট দেওয়া থাকলেও সেখানে থেকে চিনাই নদীর জল উপচে গিয়ে গ্রামে ঢুকেছে। এলাকার বাসিন্দারা আতঙ্কিত। কিছু মানুষ এখনও ফ্লাড সেন্টার রয়েছে। নামখানা ব্লক প্রশাসনের পক্ষ থেকে তাঁদের শুকনো খাবারের ব্যবস্থা করা হয়েছে। স্থানীয় বাসিন্দারা বারবার কংক্রিটের বাঁধ চেয়ে দাবি জানালেও কোনও সুরাহা হয়নি বলে অভিযোগ। প্রশাসনের কাছে তাঁরা বারবার আরজি জানাচ্ছেন, অবিলম্বে কংক্রিটের স্থায়ী নদীবাঁধ তৈরি করা হোক মৌসুনি দ্বীপে।

    না হলে একটা সময় মৌসুনি দ্বীপের কিছুই থাকবে না।অন্যদিকে, এদিন নামখানার নাদাভাঙা বাঁধেরও কিছুটা অংশ ভেঙে গিয়ে জল ঢুকেছে বলে স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে। এছাড়াও ঈশ্বরীপুর ও দ্বারিকনগর এলাকায় কিছু কিছু জায়গায় নদীবাঁধে ফাটল দেখা দিয়েছে।

  • গোসাবার প্রত্যন্ত দ্বীপের রোগীদের সুবিধার্থে ওয়াটার অ্যাম্বুল্যান্স

    বিশ্ব সমাচার, গোসাবা: নদনদীতে ঘেরা সুন্দরবনের মানুষের দুয়ারে ভ্যাকসিন পৌঁছে দিতে ভ্রাম্যমাণ ‘ভ্যাকসিন বোট’ চালু করেছিল জেলা প্রশাসন। এবার গোসাবা ব্লকের প্রত্যন্ত দ্বীপ এলাকার মানুষের জন্য ‘ওয়াটার অ্যাম্বুল্যান্স’ চালু করল সুন্দরবন উন্নয়ন দফতর। কয়েকদিন আগে জলমগ্ন গোসাবায় ত্রাণ বিলি করতে এসেছিলেন সুন্দরবন উন্নয়ন মন্ত্রী বঙ্কিমচন্দ্র হাজরা ৷ মন্ত্রীকে কাছে পেয়ে স্থানীয় বাসিন্দারা জানান, রাতবিরেত হোক বা যে-কোনও সময় কেউ অসুস্থ হলে ওপারে নিয়ে যেতে ভীষণ সমস্যা হয়৷

    তাই একটি ‘ওয়াটার অ্যাম্বুল্যান্সের’ ব্যবস্থা করলে খুব ভালো হয়৷ সেদিন স্থানীয় বাসিন্দাদের কাছে সমস্যার কথা শোনার পর থেকেই মন্ত্রী তা সমাধান করার পরিকল্পনা নিয়েছিলেন। সেই মতোই রাজ্য সরকারের তরফে ওয়াটার অ্যাম্বুল্যান্স তৈরি করা হয়। মঙ্গলবার গোসাবা জেটিঘাটে বিদ্যানদীতে এই ভ্রাম্যমাণ অ্যাম্বুল্যান্সের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করলেন সুন্দরবন উন্নয়ন মন্ত্রী বঙ্কিম হাজরা।

    উপস্থিত ছিলেন ক্যানিংয়ের মহকুমা শাসক আজাহার জিয়া, ক্যানিং পূর্ব ও পশ্চিম কেন্দ্রের বিধায়ক সওকাত মোল্লা এবং পরেশরাম দাস, বারুইপুর পূর্বের বিধায়ক বিভাস হালদার, বিডিও সৌরভ মিত্র প্রমুখ। বঙ্কিমবাবু বলেন, ‘সুন্দরবনের এই ব্লকের দ্বীপগুলির বাসিন্দারা এতদিন হাসপাতালে যাওয়ার সময় দুর্ভোগের মুখে পড়তেন। এবার সেই সমস্যার সমাধান হবে।’
    গোসাবার প্রত্যন্ত দ্বীপের মানুষের যাতায়াতের জলপথই একমাত্র ভরসা। ফলে মুমূর্ষু রোগীকে চিকিৎসার জন্য ক্যানিং কিংবা কলকাতায় নিয়ে যেতে গেলে ব্যাপক সমস্যার মুখে পড়তে হত।

    অনেক সময় হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পথেই মৃত্যু হত অনেকের। কিন্তু এই ওয়াটার অ্যাম্বুল্যান্স চালু হওয়ায় সেই সমস্যা মিটতে চলেছে৷ আপতত ভ্রাম্যমাণ অ্যাম্বুল্যান্সটি বিদ্যানদীতে রাখা হবে। তবে রোগীদের প্রয়োজনে কুমিরমারি, সাতজেলিয়া, বালি, চণ্ডীপুর, কচুখালি, গোসাবা, ছোটমোল্লাখালি, রাধানগর, তারানগরের মতো দ্বীপগুলিতে পৌঁছে যাবে অ্যাম্বুল্যান্স। প্রাথমিক ভাবে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে, রোগীদের কাছ থেকে ভাড়া হিসেবে ১০০ টাকা করে নেওয়া হবে।

    অ্যাম্বুল্যান্স চলাচলের সব খরচ বহন করবে সুন্দরবন উন্নয়ন দফতর। গোসাবার বিডিও সৌরভ মিত্র জানিয়েছেন, দ্বীপাঞ্চলের কোভিড আক্রান্তদের জন্য একটি অ্যাম্বুল্যান্স বরাদ্দ ছিল আগেই। এবার সুন্দরবন উন্নয়ন দফতর নতুন একটি ওয়াটার অ্যাম্বুল্যান্স দেওয়ায় খুবই উপকৃত দ্বীপের বাসিন্দারা।

  • গভীর সমুদ্রে মাছ ধরতে গিয়ে উত্তাল ঢেউয়ে ট্রলার উল্টে জখম ৪ মৎস্যজীবী

    অমিত মণ্ডল ও রবীন্দ্রনাথ মণ্ডল, নামখানা: গভীর সমুদ্রে মাছ ধরতে গিয়ে আবারও বিপদের মুখে পড়ল একটি ট্রলার। সোমবার নামখানা মৎস্য বন্দর থেকে এফবি তৃষা নামের একটি ট্রলার নিয়ে ছ’জন মৎসজীবী বঙ্গোপসাগরে গভীর সমুদ্রে মাছ ধরতে গিয়েছিলেন। তারপর হঠাৎ সমুদ্রের উত্তাল ঢেউয়ের মাঝে ট্রলারের ইঞ্জিন বিকল হয়ে পড়ে। কৌশিকী অমাবস্যা থাকার কারণে সাগর ছিল উত্তাল।

    জম্বুদ্বীপের কাছে যখন ওই ছ’জন মৎসজীবী মাছ ধরছিলেন, তখন প্রবল ঢেউ এসে ইঞ্জিনের উপর পড়ে। ইঞ্জিন বিকল হয়ে যায়। ট্রলারটিতে ওয়্যারলেস মাইক্রোফোন না থাকায় উদ্ধার করার জন্য অন্যান্য ট্রলারের সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারেননি বিপদগ্রস্ত মৎস্যজীবীরা। ভাসতে ভাসতে গভীর সমুদ্র পেরিয়ে ট্রলারটি দীঘা মোহানার কাছে পৌঁছয়।

    মৎস্যজীবীরা বাঁচানোর জন্য চিৎকার করতে থাকেন। কিন্তু কাছেপিঠে কেউ না থাকায় তাঁদের উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি। অবশেষে ওল্ড দিঘার কাছে ট্রলারটি পৌঁছয় এবং কয়েকটি বোল্ডারে সজোরে ধাক্কা মারে। কাছাকাছি থাকা পর্যটকরা সেই ঘটনা দেখে পুলিশে খবর দেন। সঙ্গে সঙ্গে দীঘা থানার পুলিশ এসে পৌঁছয় ঘটনাস্থলে। বারবার ঢেউয়ের আঘাতে ট্রলারটি উল্টে যায়।

    সমুদ্রে পড়ে যান মৎস্যজীবীরা। প্রশাসনিক তৎপরতায় তাঁদের উদ্ধার করা হয়। এই ঘটনায় চারজন মৎসজীবী গুরুতর জখম হওয়ায় তাঁদের দীঘা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। তাঁদের স্থিতিশীল রয়েছে বলে জানা গিয়েছে।

  • পথ নিরাপত্তা সপ্তাহ শেষ হল বারুইপু

    বিশ্ব সমাচার, বারুইপুর: পথ নিরাপত্তা সপ্তাহ শেষ হল মঙ্গলবার। পয়লা সেপ্টেম্বর শুরু হয়েছিল। এ বছর ‘সেফ ড্রাইভ সেভ লাইফ’ পঞ্চম বছরে পদার্পণ করল। দক্ষিণ২৪ পরগনার বারুইপুরের পদ্মপুকুর বাইপাস সংলগ্ন ট্রাফিক কিওস্কের সামনে ছোট অনুষ্ঠানের মাধ্যমে পথ নিরাপত্তা সপ্তাহ শেষ হয়।

    এই অনুষ্ঠানে সহযোগিতা করে বারুইপুরের ভাই ভাই সংঘ। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ট্রাফিক ইন্সপেক্টর অতীন মুখোপাধ্যায়, ট্রাফিক আধিকারিক এস কে আসলাম উদ্দিন শেখ সহ অন্যান্য আধিকারিক, সিভিল ভলান্টিয়াররা, ভাই ভাই সংঘের সদস্যরা। এই উপলক্ষে মাস্ক, গোলাপ ফুল, মিষ্টি এবং সেফ ড্রাইভ সেভ লাইফ-এর স্টিকার সেঁটে দেওয়া হয় গাড়িতে। ট্রাফিক ইন্সপেক্টর বলেন, আগের থেকে পথদুর্ঘটনা অনেক কমেছে।

    তবে তিনি বলেন, যত দিন না দুর্ঘটনা শূন্যে নামবে, তত দিন এই সপ্তাহ পালন করে যাব। সাধারণ মানুষকেও সচেতন হতে হবে ‘সেফ ড্রাইভ সেভ লাইফ’ সম্বন্ধে।

  • ফ্রেজারগঞ্জে পথ নিরাপত্তায় পা মেলালেন পুলিশকর্মীরা

    অমিত মণ্ডল ও রবীন্দ্রনাথ মণ্ডল, নামখানা: মঙ্গলবার ফ্রেজারগঞ্জ থানার পক্ষ থেকে ‘সেফ ড্রাইভ সেভ লাইফ’ পালন করা হল। এদিন সকালে ফ্রেজারগঞ্জ থানার পুলিশকর্মীরা ফ্রেজারগঞ্জ কোস্টাল থানা থেকে জেটিঘাট বাজার পর্যন্ত মিছিল করে যান। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন নামখানার এসডিপিও দীপাঞ্জন চট্টোপাধ্যায়, ফ্রেজারগঞ্জ কোস্টাল থানার ওসি রাজু বিশ্বাস সহ অন্যান্য পুলিশ কর্মী ও সিভিক ভলান্টিয়াররা।

    যে সমস্ত চালক হেলমেটবিহীন ভাবে বাইক চালাচ্ছিলেন, তাঁদের হেলমেট পরতে অনুরোধ জানান পুলিশকর্মীরা। এসডিপিও জানিয়েছেন, প্রতি বছরই আমাদের এই অনুষ্ঠানটি পালন করা হয়। আর এর মাধ্যমে মানুষ আগের থেকে অনেক সচেতন হয়েছে। তাই আগের তুলনায় দুর্ঘটনার সংখ্যাও কমেছে।

  • পাথরপ্রতিমায় নিয়ম মেনে গাড়ি চালাতে প্রচার

    রবীন্দ্রনাথ সামন্ত, পাথরপ্রতিমা: মঙ্গলবার পাথর প্রতিমায় ‘সেফ ড্রাইভ সেভ লাইফ’ প্রচারাভিযান চালাল পাথরপ্রতিমা থানা। এদিন এই প্রচারাভিযান চলে রামগঙ্গায়। মিছিলে পা মিলিয়েছেন পাথরপ্রতিমা থানার আধিকারিক সহ অন্যান্য পুলিশকর্মী, সিভিক ভলান্টিয়ার এবং পথচলতি মানুষজন।

    সঠিক নিয়ম মেনে নির্দিষ্ট গতিতে গাড়ি চালানোর নির্দেশিকা এই অভিযানে প্রচার করা হয়েছে। এছাড়া প্রত্যেক যাত্রীকে মুখে মাস্ক পরে গাড়িতে ওঠার নির্দেশিকা জারি করা হয়। রাস্তার উপর যেখানে সেখানে অযথা গাড়ি দাঁড় না করিয়ে যানজটমুক্ত করার কথা বলা হয়েছে প্রচার অভিযান থেকে।

  • মৌসুনীতে অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষকদের সংবর্ধনা, ফ্রি মেডিক্যাল ক্যাম্প

    বিশ্ব সমাচার, নামখানা: দক্ষিণ ২৪ পরগনার মৌসুনী দ্বীপের বালিয়াড়াতে রবিবার শিক্ষক দিবস উপলক্ষে অঞ্চল যুব তৃণমূল কংগ্রেসের পক্ষ থেকে অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক-শিক্ষিকাদের সংবর্ধনা দেওয়া হয়।সেই সঙ্গে একটি ফ্রি মেডিক্যাল ক্যাম্পও করা হয়। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বহু অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক, শিক্ষিকা। তাঁদের বিনামূল্যে স্বাস্থ্য পরীক্ষা করানো হয়।

    তাঁরা বলেন, আমাদের মতো অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক শিক্ষিকাদের এখন কেউ আর মনে রাখে না। কিন্তু মৌসুনী অঞ্চল যুব তৃণমূলের পক্ষ থেকে আজ যে সংবর্ধনা দেওয়া হল, তার জন্য আমরা গর্বিত। এ বিষয়ে মৌসুনী অঞ্চল যুব তৃণমূল সভাপতি গোপাল গিরি জানান, এদিন অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সেখ হামিদুল রহমান, বিশ্বজিৎ নাইয়া, রামকৃষ্ণ সী সহ বিশিষ্ট ব্যাক্তিরা।

  • শিক্ষক দিবস পালিত নামখানার কোচিং সেন্টারগুলিতে

    বিশ্ব সমাচার, নামখানা: রবিবার নামখানার বিভিন্ন কোচিং সেন্টারে পালিত হয় শিক্ষক দিবস। এদিন বিভিন্ন জায়গায় নানা অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে পালিত হয় এই অনুষ্ঠান। শিক্ষকরা বলেন, আমরা ডক্টর সর্বপল্লী রাধাকৃষ্ণনের আদর্শ মেনে ছাত্রছাত্রীদের সুশিক্ষা দিয়ে যাব।

    যাতে করে তাদের ভবিষ্যৎ উজ্জ্বল হয় এবং সমাজে তারা প্রতিষ্ঠিত হয়। করোনার অতিমারিতে প্রায় দেড় বছর স্কুল বন্ধ। তাই কোচিং সেন্টারগুলিতে শিক্ষক দিবস পালন করলাম।

  • সাগরে বিশেষ টিকাকরণ সপ্তাহ

    বিশ্ব সমাচার, সাগর: দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলার সাগর ব্লকে সোমবার অনুষ্ঠিত হল বিশেষ টিকাকরণ সপ্তাহ। এর উদ্বোধন করেন সুন্দরবন উন্নয়ন মন্ত্রী বঙ্কিম হাজরা। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বিডিও সুদীপ্ত মণ্ডল, ব্লক স্বাস্থ্য আধিকারিক অংশুমান বোস ও অন্যান্য আধিকারিকরা।

    সুন্দরবন উন্নয়ন দপ্তর ও জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে সাগর ব্লক প্রশাসন ও স্বাস্থ্য দপ্তরের পরিচালনায় আগামী বছর গঙ্গাসাগর মেলার আগে সাগর ব্লকের ১৮ বছরের ঊর্ধ্বে ৬০ বছর পর্যন্ত সমস্ত মানুষকে কোভিড টিকা পাবেন। ব্লক প্রশাসনের সূত্রে খবর, এখনও পর্যন্ত সাগর ব্লকে টিকার প্রথম ডোজ পেয়েছেন ১ লক্ষ ৮ হাজারের বেশি মানুষ।

    মূলত সোমবার সাগর ব্লকের ন’টি পঞ্চায়েতের প্রতিটি বুথ ধরে এই টিকা দেওয়ার কর্মসূচি শুরু হয়েছে। প্রশাসনের লক্ষ্য, ১ লক্ষ ৫০ হাজার মানুষকে টিকা দেওয়া। সুন্দরবন উন্নয়ন মন্ত্রী বঙ্কিম হাজরা বলেন, কেউ ভ্যাকসিনের টিকা পাওয়া থেকে বঞ্চিত হবেন না। ৬ সেপ্টেম্বর থেকে এক সপ্তাহ এই কর্মসূচি চলবে।

  • নামখানায় দুঃস্থ পড়ুয়াদের বই, খাতা, পেন বিতরণ

    রবীন্দ্রনাথ মণ্ডল ও অমিত মণ্ডল, নামখানা: রবিবার শিক্ষক দিবসে কল্পতরু আশ্রমের ব্যবস্থাপনায় একাদশ শ্রেণির ৮০ জন ছাত্রীকে পাঠ‍্যপুস্তক, খাতা, পেন ও চারাগাছ তুলে দেওয়া হয়। সেই সঙ্গে নাগের বাজার বান্ধব ওয়েলফেয়ার সোসাইটির পক্ষ থেকে ৫০ জন ছাত্রীর থ্যালাসামিয়া পরীক্ষা করা হয়।

    ওই সোসাইটির সদস্যরা ছাত্রীদের হাতে পাঠ‍্যবই তুলে দেন। এব্যাপার কল্পতরু আশ্রমের কর্ণধার স্বপন চক্রবর্তী বলেন, যশে দুর্গত এলাকার দুঃস্থ ছাত্রীদের বই, খাতা, পেন ও চারাগাছ বিতরণ করা হয়। নাগের বাজার বান্ধব ওয়েলফেয়ার সোসাইটির সহযোগিতায় আমরা আজ এই সাহায্য করতে পারলাম।

Back to top button