25 Sep 2021, 6:25 AM (GMT)

Coronavirus Stats

33,624,419 Total Cases
446,690 Death Cases
32,876,319 Recovered Cases

দেশ

  • ত্রিপুরা বিধানসভার নতুন অধ্যক্ষ হলেন রতন চক্রবর্তী

    সংবাদ সংস্থা : ত্রিপুরা বিধানসভার নতুন অধ্যক্ষ নির্বাচিত হলেন বর্ষীয়ান বিজেপি নেতা তথা প্রাক্তন মন্ত্রী রতন চক্রবর্তী । ত্রিপুরা বিধানসভার ১৪ তম অধ্যক্ষ হিসেবে নির্বাচিত হলেন তিনি। এর আগে ত্রিপুরার বিধায়ক ছিলেন রেবতী মোহন দাস । চলতি মাসের শুরুর দিকেই ব্যক্তিগত কারণ দেখিয়ে বিধানসভার অধ্যক্ষ পদে ইস্তফা দিয়েছিলেন তিনি।

    ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব এবং বিরোধী দলনেতা তথা প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী মানিক সরকার আনুষ্ঠানিকভাবে বিধানসভার নতুন অধ্যক্ষকে স্বাগত জানান এবং প্রথা মেনে তাঁরা রতন চক্রবর্তীকে অধ্যক্ষের আসন পর্যন্ত নিয়ে যান।নতুন অধ্যক্ষ হিসেবে নিযুক্ত হওয়ার পর বিজেপির তরফে তাঁকে শুভেচ্ছা জানানো হয়েছে।

    বিজেপির তরফে এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, “সর্বসম্মতিক্রমে রাজ্যের পবিত্র বিধানসভার অধ্যক্ষ পদে নির্বাচিত হওয়ায় বরিষ্ঠ বিধায়ক শ্রী রতন চক্রবর্তী মহোদয়কে জানাই শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন। আপনার অভিজ্ঞ কর্মদক্ষতায় বিধানসভার কাজ আরও সুচারু রূপে পরিচালিত হবে এই কামনা করি।”

  • পাকিস্তানের জঙ্গি যোগ নিয়ে মোদীর কাছে উদ্বেগ প্রকাশ কমলার

    সংবাদ সংস্থা : মার্কিন সফরের প্রথম দিনই ভারতের প্রধানমন্ত্রী দ্বিপাক্ষিক বৈঠকে বসেন সেদেশের ভাইস প্রেসিডেন্ট কমলা হ্যারিসের সঙ্গে। আর সেই বৈঠকেই উঠে আসে পাকিস্তান প্রসঙ্গ। সংবাদ সংস্থা এএনআই সূত্রে জানা গিয়েছে, বৈঠকে পাকিস্তানের জঙ্গি যোগ নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেন কমলা। পাশাপাশি ইসলামাবাদের সঙ্গে জঙ্গি সংগঠনগুলির যোগাযোগের উপর বিশেষ নজরদারি চালানো হবে বলেও জানান তিনি। ভারতীয় বিদেশ সচিব হর্ষবর্ধন শ্রীংলা জানান যে মোদী-কমলা বৈঠকে তালিবান প্রসঙ্গও উঠে আসে।

    জানা গিয়েছে, সীমান্ত পারের সন্ত্রাসবাদ কার্যকলাপ প্রসঙ্গে মোদীর সঙ্গে একমন কমলা। এই বিষয়ে শ্রীংলা বলেন, ‘বৈঠকে সন্ত্রাসবাদের বিষয়টি উঠে আসে। ভাইস প্রেসিডেন্ট নিজের থেকেই সেই সময় পাকিস্তানের ভূমিকার বিষয়টি উল্লেখ করেন। তিনি বলেন যে সেখানে সন্ত্রাসী গোষ্ঠী কাজ করছে। তিনি পাকিস্তানকে পদক্ষেপ নিতে বলেছেন যাতে এই গোষ্ঠীগুলি মার্কিন নিরাপত্তা এবং ভারতের নিরাপত্তার উপর প্রভাব না ফেলে।’ মোদী-কমলা বৈঠক প্রসঙ্গে শ্রীংলা আরও বলেন, ‘কমলা হ্যারিস সীমান্ত সন্ত্রাসের সত্যতা মেনে নেন।

    তিনি প্রধানমন্ত্রী মোদীর সঙ্গে সহমত পোষণ করেন যে সত্যি ভারত বিগত কয়েক দশক ধরে সন্ত্রাসবাদের শিকার হয়ে এসেছে। এই ধরনের সন্ত্রাসী গোষ্ঠীর প্রতি পাকিস্তানের সমর্থনকে লাগাম টানার কথাও বলেন তিনি। বিষয়টির উপর নজরদারি চালানোর প্রয়োজনীয়তা সম্পর্কে প্রধানমন্ত্রীর সাথে একমত হন মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট।’ আলোচনায় সন্ত্রাসবাদের সমস্যা ছাড়াও উঠে আসে কোভিড, জলবায়ু পরিবর্তন, প্রযুক্তি খাতে সহযোগিতা সহ সাইবার নিরাপত্তা, মহাকাশ সহ বিভিন্ন বিষয়।’

  • দিল্লির আদালতে চলল গুলি, আইনজীবী বেশে গ্যাংস্টারকে খুন দুষ্কৃতীদের

    সংবাদ সংস্থা : দিল্লির রোহিণী কোর্টে দুষ্কৃতীদের তাণ্ডব।আইনজীবী বেশে আদালতে এসে এলোপাথাড়ি গুলি চালাতে থাকে। সেই ঘটনায় দিল্লির কুখ্যাত গ্যাংস্টার জিতেন্দ্র ওরফে গোগি খুন হয়। এজিকে বন্দুকবাজদের উদ্দেশে পালটা গুলি চালায় পুলিশ। ঘটনায় গ্যাংস্টার ছাড়া আরও দুই জনের মৃত্যুর খবর মিলেছে।কুখ্যাত দুষ্কৃতী জিতেন্দ্র ওরফ গোগিকে শুক্রবার দিল্লির রোহিণী কোর্টে পেশ করার জন্য নিয়ে আসা হয়েছিল।

    কোর্ট নম্বর ২০৬-এ চলছিল শুনানি। সেই সময়ই গোগীর বিরোধী গোষ্ঠী টিল্লুর গ্যাংয়ের দুই জন দুষ্কৃতী উকিলের পোশাকে ছদ্মবেশে আদালতে ঢোকে বলে অভিযোগ। আদালত কক্ষের কাছে গিয়ে গোগির উপর এলোপাথাড়ি গুলি চালায় তারা। জবাবে পুলিশও গুলি চালায়। পুলিশের গুলিতে দুই জন হামলাকারীর মৃত্যু হয় বলে জানা গিয়েছে। গুরুতর ভাবে জখম হয় গোগি। পরে তারও মৃত্যু হয়।মৃত গ্যাংস্টার গোগির বয়স ৩০।

    স্কুল ছেড়ে কম বয়সে জমি-সম্পত্তি বিষয়ে লেনদেন শুরু করে সে। এরপর বেশ কয়েকটি অপরাধমূক মামলার সঙ্গে নাম জড়িয়ে পড়ে গোগির। ২০২০ সালে গোগিকে মহারাষ্ট্রে গ্রেফতার করা হয়। তার বিরুদ্ধে হত্যা, ডজনখানেক চাঁদাবাজি ছাড়াও ডাকাতি, গাড়ি চুরি এবং ডাকাতির মামলা চলছিল।

  • ২৭ সেপ্টেম্বর থেকে চালু হবে প্রধানমন্ত্রী ডিজিটাল হেল্‌থ মিশন

    স্টাফ রিপোর্টার : আগামী সোমবার, অর্থাৎ ২৭ সেপ্টেম্বর দেশ জুড়ে ‘প্রধানমন্ত্রী ডিজিটাল হেলথ মিশন’-এর সূচনা করবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। এই প্রকল্পের মাধ্যমে মূলত দেশের স্বাস্থ্য কাঠামোর ব্যপক পরিবর্তন আনা হবে বলে মনে করা হচ্ছে। দেশের স্বাস্থ্য ব্যবস্থাকে প্রযুক্তির মাধ্যমে একটি ছাদের তলায় আনা হবে।

    যে কাঠামো তৈরি হবে, তাতে থাকবে পরিচয়পত্র, চিকিৎসক ও স্বাস্থ্য পরিষেবা প্রদানকারী সংস্থাগুলির বিস্তারিত তথ্য। দেওয়া হবে টেলিমেডিসিনের মতো পরিষেবাও।এ ছাড়া এই প্রকল্পের মাধ্যমে দেশের মানুষকে দেওয়া হবে নিজস্ব স্বাস্থ্য পরিচয়পত্র। সেখানেও নির্দিষ্ট ব্যক্তির স্বাস্থ্য সংক্রান্ত বিভিন্ন তথ্য নথিভুক্ত থাকবে। সেই কার্ড তৈরি করা যাবে আধার কার্ড, মোবাইল নম্বরের মতো তথ্য দিয়ে। সরকারের মতে এর ফলে সামগ্রিক ভাবে স্বাস্থ্য পরিকাঠামোর উন্নতি করা সম্ভব হবে।

    এর মাধ্যমে সাধারণ মানুষের তাঁদের চিকিৎসা সংক্রান্ত সমস্ত তথ্য, স্বাস্থ্যের নথি ডিজিটাল মাধ্যমে সঞ্চয় করে রাখতে পারবেন।আপাতত দেশের ছ’টি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল, যেমন আন্দামান ও নিকোবর, চণ্ডীগড়, দমন ও দিউ, লাদাখ, লাক্ষাদ্বীপ ও পুদুচেরিতে এই প্রকল্প পরীক্ষা মূলক ভাবে শুরু হয়েছে।

  • বেঙ্গালুরুতে ভয়াবহ বিস্ফোরণ, ঘটনায় মৃত অন্তত তিনজন, আহত আরও দুই

    স্টাফ রিপোর্টার : বেঙ্গালুরুতে এক ভয়াবহ বিস্ফোরণে মৃত্যু হল অন্তত তিন জনের। প্রাথমিক ভাবে জানা গিয়েছে এক বাজির গোডাউনে বিস্ফোরণটি হয়েছে। ঘটনাস্থলেই দুইজনকে মৃত অবস্থায় পাওয়া যায়। একজনের অবস্থা খুবই আশঙ্কাজনক ছিল। পরে তিনিও মারা যান। এছাড়া আরও দুই জন আহত হয়েছেন। তাঁদেরকে ঘটনাস্থলকে উদ্ধার করা হয়েছে। মৃতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

    জানা গিয়েছে বেঙ্গালুরুর ভিভি পুরম পুলিশ থানার কাছে চামরাজপেটে ঘটনাটি ঘটে। বিস্ফোরণের খবর পেয়েই সেখানে পৌঁছায় স্থানীয় থানার পুলিশ। পৌঁছে যায় দমকলের ফায়ার ইঞ্জিনও। আগুন নেভানোর চেষ্টা চলছে বলে জানা গিয়েছে। বিস্ফোরণের কারণ সম্পর্কে এখনও কোনও স্পষ্ট ধারণা দিতে পারেনি পুলিশ। একজন ঊর্ধ্বতন পুলিশ কর্মকর্তা জানান, এখনও পর্যন্ত শুধুমাত্র প্রাথমিক তথ্য পাওয়া যাচ্ছে।

    তিনি বলেন, ‘আমরা ওই স্থানে বাজি খুঁজে পেয়েছি, কিন্তু আমরা ঘটনাস্থলে বোমা নিষ্ক্রিয়করণ ইউনিট এবং ডগ স্কোয়াডকেও ডেকেছি। তারা এলাকায় তল্লাশি চালাবে। আমরা কিছু সময়ের মধ্যে একটি পরিষ্কার ছবি পাব।’ এদিকে মৃতদের পরিচয় এখনও জানা যায়নি বলে জানিয়েছে পুলিশ।

  • এনকাউন্টারে খতম 1 জঙ্গি

    স্টাফ রিপোর্টার : গুলির আওয়াজে কেঁপে উঠল জম্মু-কাশ্মীরের শোপিয়ান জেলা৷ পুলিশের গুলিতে খতম এক জঙ্গি৷ গোপন সূত্রে জঙ্গিদের লুকিয়ে থাকার খবর পেয়ে বৃহস্পতিবার সকালে শোপিয়ান জেলার কাসু চিতরাগাম এলাকায় তল্লাশি অভিযান শুরু করে যৌথবাহিনী৷ জঙ্গিদের আস্তানার কাছাকাছি নিরাপত্তাবাহিনী পৌঁছাতেই বিকট শব্দে গোলাগুলি শুরু হয়৷

    জবাব দিতে থাকে নিরাপত্তাবাহিনীও৷ গুলি বিনিয়মের সময় এক জঙ্গিকে খতম করে পুলিশ৷মৃত জঙ্গির পরিচয় জানার চেষ্টা করা হচ্ছে৷ কোনও সংগঠনের সঙ্গে যুক্ত ছিল না জানার চেষ্টা করছে পুলিশ৷ ওই এলাকায় তল্লাশি অভিযান জারি রয়েছে৷

  • ব্রিটেনেও ভ্যাকসিন হিসাবে মান্যতা পেল কোভিশিল্ড, বাধ্যতামূলক কোয়ারেন্টাইন

    সংবাদ সংস্থা : তুমুল বিতর্কের জেরে অবশেষে হার মানল ব্রিট্রেন, ভ্যাকসিন হিসাবে মান্যতা দেওয়া হল কোভিশিল্ড-কে। পরিবর্তন আনা হল ভারতীয়দের ভ্রমণ ও কোয়ারেন্টাইনের নিয়মেও। তবে ব্রিটেন সরকারের তরফে জানানো হয়েছে, তাদের টিকা নিয়ে সমস্যা না থাকলেও টিকা সার্টিফিকেট নিয়ে কিছু সমস্যা থাকায় আপাতত ভারতীয় যাত্রীদের কোয়ারেন্টাইন-এই থাকতে হবে। ব্রিটেনের নির্দেশিকা জারি করে জানা হয়েছে, “আপাতত চারটি ভ্যাকসিনকে স্বীকৃতি দেওয়া হচ্ছে।

    অ্য়াস্ট্রাজেনেকার ভ্যাক্সজেভ্রিয়া, মডার্না, ফাইজ়ার এবং অ্যাস্ট্রাজেনেকার কোভিশিল্ডকে অনুমোদন প্রাপ্ত টিকা হিসাবে গণ্য করা হবে।আগামী ৪ অক্টোবর থেকে কোভিশিল্ডকে করোনা টিকা হিসাবে গণ্য করা হলেও, দুটি টিকাপ্রাপ্ত ভারতীয় যাত্রীদের বিট্রেনে গিয়ে ১০দিনের বাধ্যতামূলক কোয়ারেন্টাইনেই থাকতে হবে।”

  • দ্বিতীয় পর্যায়ের ট্রায়ালেও সফল, ১৮-অনুর্ধ্বদের জন্য শীঘ্রই টিকা

    সংবাদ সংস্থা : বাচ্চাদের জন্য করোনার টিকায় আশার আলো। আঠারোর কম বয়সীদের জন্য টিকার ট্রায়ালের দ্বিতীয় ধাপ পেরোল ভারত বায়োটেকের কোভ্যাক্সিন। আগামী সপ্তাহেই এ বিষয়ে বিস্তারিত তথ্য ড্রাগ কন্ট্রোলার জেনারেল অফ ইন্ডিয়াকে জমা দেবে ভারত বায়োটেক। সংবাদসংস্থাকে দেওয়া সাক্ষাতকারে ভারত বায়েটেকের ম্যানেজিং ডিরেক্টর কৃষ্ণা এলা জানান, দ্বিতীয় ট্রায়ালেও সফল হয়েছে পেডিয়াট্রিক কোভ্যাক্সিন।

    যদিও ডেটা অ্যানালিসিস পর্যায় এখনও সম্পন্ন হয়নি। আগামী সপ্তাহের মধ্য়েই তা সম্পন্ন হবে বলে আশা করা যাচ্ছে। তৃতীয় পর্যায়ের ট্রায়ালে এক হাজার স্বেচ্ছাসেবকের উপর পরীক্ষা করা হতে পারে বলে জানা গিয়েছে।ভারত বায়েটেকের মতে, চলতি মাসের শেষের দিকেই কোভিডের ইন্ট্রান্যাজাল ভ্যাকসিনের দ্বিতীয় পর্যায়ের ট্রায়ালও শেষ হয়ে যাবে। পরীক্ষায় দেখা গিয়েছে, নাকে অনাক্রমণ প্রতিরোধ গড়ে তুলতে সক্ষম কোভ্যাক্সিনের ন্যাজাল স্প্রে। যার ফলে করোনার প্রবেশ আটকানো যায়। ন্যাজাল ভ্যাকসিনের ট্রায়াল মোট সাড়ে ছয়শো স্বেচ্ছাসেবকের উপর চালানো হয়েছে।

    পরীক্ষার সময় স্বেচ্ছাসেবকদের তিনটি আলাদা আলাদা গ্রুপে ভাগ করা হয়েছিল।এলা আরও জানান, ভারত বায়োটেকের বেঙ্গালুরুর কেন্দ্রে কোভ্যাক্সিন উৎপাদনের গতি বাড়ানো হয়েছে। যার জেরে অক্টোবরের মধ্যেই দেশে সাড়ে ৫ কোটি কোভ্যাক্সিনের জোগান দেবে সংস্থা।

  • সোনি ইন্ডিয়ার সঙ্গে গাঁটছড়া বাঁধছে জি এন্টারটেইনমেন্ট

    সংবাদ সংস্থা : সোনি ইন্ডিয়ার সঙ্গে মিশে যাচ্ছে জি এন্টারটেইনমেন্ট ৷ ইতিমধ্যেই এই দুই সংস্থার মধ্যে এ নিয়ে চুক্তি স্বাক্ষর হয়েছে ৷ বুধবার স্টক এক্সচেঞ্জে এই বিষয়ে একটি নির্দেশিকা জমা পড়ে ৷ তাতেই প্রকাশ্যে আসে গোটা ঘটনা ৷ সূত্রের খবর, এদিনই বৈঠকে বসেছিলেন জি এন্টারটেইনমেন্টের বোর্ড অফ ডিরেক্টর্সের সদস্যরা ৷ বৈঠকে সর্বসম্মতভাবে সোনির সঙ্গে গাঁটছড়া বাঁধার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় ৷সংশ্লিষ্ট চুক্তিপত্র মোতাবেক, এই সংযুক্তির পরও জি এন্টারটেইনমেন্টের সিইও পদে বহাল থাকবেন পুনিত গোয়েঙ্কা ৷

    তবে বোর্ডের ডিরেক্টরদের নিয়োগের ক্ষেত্রে সোনি ইন্ডিয়ার হাতে বেশি ক্ষমতা থাকবে ৷ শেয়ার বা অংশীদারিত্বের দিক দিয়ে দেখতে গেলেও সোনির পাল্লা এক্ষেত্রে ভারী ৷ বস্তুত, দু’টি সংস্থা মিশে যাওয়ার পর জি এন্টারটেইনমেন্টের হাতে থাকবে ৪৭.০৭ শতাংশ শেয়ার ৷ আর ৫২.৯৩ শতাংশ শেয়ার থাকবে সোনি ইন্ডিয়ার হাতে ৷ প্রাথমিকভাবে ৯০ দিনের জন্য চুক্তিবদ্ধ হচ্ছে এই দুই সংস্থা ৷ এই সময়ের মধ্যেই পাকা চুক্তি তৈরির কাজ শেষ করা হবে ৷ আমজনতা চাইলে নতুন সংস্থার শেয়ার কেনাবেচাও করতে পারবে ৷জি এন্টারটেইনমেন্টের তরফে আর গোপালন জানিয়েছেন, এই সংযুক্তির ফলে সংস্থার উন্নতি হবে বলে তাঁদের আশা ৷

    মনে করা হচ্ছে, এর ফলে শেয়ার বাজারে নয়া সংস্থার দর বাড়বে ৷ যাঁরা শেয়ার কেনাবেচা করেন, তাঁরাও এর ফলে উপকৃত হবেন বলে মনে করেন গোপালন ৷ তাঁর দাবি, এই সংযুক্তির ফলে তাঁদের সংস্থায় বিনিয়োগকারীদের আয় বাড়বে ৷ বাড়বে ভবিষ্যতের নিশ্চয়তা ৷ তবে তার আগে নিয়ম মাফিক শেয়ার হোল্ডারদের কাছে এই সংযুক্তির জন্য অনুমতিও চাওয়া হবে ৷

  • করোনায় মৃত্যু হলে ৫০ হাজার টাকার ক্ষতিপূরণ, সুপ্রিম কোর্টে জানাল কেন্দ্র

    সংবাদ সংস্থা : করোনা আক্রান্ত হয়ে যাদের মৃত্যু হয়েছে, এবং আগামী সময় যাদের মৃত্যু হবে, তাঁদের পরিবারবর্গকে ৫০ হাজার টাকার ক্ষতিপূরণ দেওয়া হবে। তবে সেই ক্ষতিপূরণ দেবে রাজ্য সরকার। করোনা সংক্রান্ত মামলার শুনানি চলাকালীন বুধবার শীর্ষ আদালতে এমনটাই জানিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার।

    রাজ্যের বিপর্যয় মোকাবিলা দফতর থেকে সেই টাকা দেওয়া হবে স্বজনহারাদের পরিণাবারবর্গকে। আদালতে বলা হয়েছে কেন্দ্রীয় সরকারের পক্ষ থেকে। জেলা প্রশাসনের মাধ্য়মে ক্ষতিপূরণের টাকা পৌঁছে দেওয়া হবে বলে জানিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার।ভারতে করোনা প্রবেশ করার পর থেকে এখনও পর্যন্ত প্রায় ৪.৪৫ লক্ষ মানুষের মানুষের মৃত্য়ু হয়েছে।

    কেন্দ্রের বক্তব্য় অনুযায়ী, এদের পরিবারকে যে ক্ষতিপূরণ দেওয়া হবে তার পুরো টাকাটাই দিতে হবে রাজ্য সরকারকে নিজের তহবিল থেকে। কেন্দ্রের পক্ষ থেকে যে হলফনামা শীর্ষ আদালতে জমা দেওয়া হয়েছে, সেখানেই উল্লেখ করা হয়, “পরবর্তী কোন বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ না পাওয়া পর্যন্ত এই সহায়তা প্রদান অব্যাহত থাকবে।”

Back to top button