25 Sep 2021, 6:55 AM (GMT)

Coronavirus Stats

33,624,419 Total Cases
446,690 Death Cases
32,876,319 Recovered Cases

Breaking News

  • শ্লীলতাহানির অভিযোগ পুলিশকর্তার বিরুদ্ধে, কমিশনে চিঠি বিজেপির

    স্টাফ রিপোর্টার : এবার কলকাতা পুলিশের ডিসি সাউথ আকাশ মাঘারিয়ার বিরুদ্ধে শ্লীলতাহানির অভিযোগে সরব বিজেপি।বুধবারই নার্সিংহোমে মৃত্যু হয় দক্ষিণ ২৪ পরগনার মগরাহাটের বিজেপি নেতা মানস সাহার। অভিযোগ, ভোটের ফলাফল প্রকাশের পর গত ৩ মে তাঁর উপর হামলা হয়। মাথায় আঘাত নিয়ে তিনি হাসপাতালে ভরতি ছিলেন বেশ কয়েকদিন। সুস্থ হয়ে বাড়ি ফেরার পরও অসুস্থ হওয়ায় দিনকয়েক আগে ফের হাসপাতালে ভরতি হন তিনি।

    বুধবার তাঁর মৃত্যু হয়। বৃহস্পতিবার তাঁর শেষকৃত্য ছিল।ওইদিন মানস সাহার দেহ নিয়ে ভবানীপুরে যান রাজ্য বিজেপির (BJP) নেতানেত্রীরা। ছিলেন ভবানীপুরের বিজেপি প্রার্থী প্রিয়াঙ্কা টিবরেওয়াল, বিজেপি রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার, সাংসদ অর্জুন সিং, জ্যোতির্ময় সিং মাহাতো-সহ আরও অনেকেই।

    ভবানীপুরে মৃতদেহ নিয়ে যাওয়া নিয়ে বিক্ষোভের মাঝে কলকাতা পুলিশের ডিসি সাউথ আকাশ মাঘারিয়া তাঁর শ্লীলতাহানি করেন বলেই অভিযোগ প্রিয়াঙ্কা টিবরেওয়ালের । এই মর্মে নির্বাচন কমিশনে চিঠিও পাঠায় বিজেপি। তাঁকে অবিলম্বে সরিয়ে দেওয়ার দাবি জানায় গেরুয়া শিবির।

  • মিশন গোয়া, ৭ দিনের সফরে ডেরেক, প্রসূন

    স্টাফ রিপোর্টার : আগামী বছর অর্থাৎ ২০২২ সালে গোয়ায় বিধানসভা নির্বাচন। আর তকেই এবার পাখির চোখ করেছে তৃণমূল। সর্বভারতীয় স্তরে সংগঠন বাড়ানোর পথে এগিয়ে চলেছে রাজ্যের শাসকদল। তারই অংশ হিসেবে ত্রিপুরা, অসম, উত্তরপ্রদেশ, গুজরাটের পর এবার তৃণমূলের মিশন বিজেপি শাসিত গোয়া।সেই লক্ষ্যে শুক্রবার সকালেই গোয়া পৌঁছে গেলেন দলের সর্বভারতীয় মুখপাত্র তথা রাজ্যসভার সাংসদ ডেরেক ও ব্রায়েন, লোকসভার সাংসদ প্রসূন বন্দ্যোপাধ্যায়।

    দলীয় সূত্রে খবর, সাতদিনের সফরে তাঁরা গিয়েছেন গোয়ায়। এই ৭ দিন টানা বৈঠক করবেন দুই সাংসদ।গোয়ার রাজনৈতিক জমি ঠিক কেমন, তার প্রাথমিক ধাঁচটা বুঝতে গোয়ায় যাওয়ার কথা ছিল দলের সাংসদীয় কমিটির। সেইমতো আপাতত ডেরেক এবং প্রসূন বন্দ্যোপাধ্যায়কে পাঠানো হল গোয়ায়।তৃণমূল সূত্রে খবর, আগামী দিনে গোয়া যেতে পারেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়।

  • ত্রিপুরা বিধানসভার নতুন অধ্যক্ষ হলেন রতন চক্রবর্তী

    সংবাদ সংস্থা : ত্রিপুরা বিধানসভার নতুন অধ্যক্ষ নির্বাচিত হলেন বর্ষীয়ান বিজেপি নেতা তথা প্রাক্তন মন্ত্রী রতন চক্রবর্তী । ত্রিপুরা বিধানসভার ১৪ তম অধ্যক্ষ হিসেবে নির্বাচিত হলেন তিনি। এর আগে ত্রিপুরার বিধায়ক ছিলেন রেবতী মোহন দাস । চলতি মাসের শুরুর দিকেই ব্যক্তিগত কারণ দেখিয়ে বিধানসভার অধ্যক্ষ পদে ইস্তফা দিয়েছিলেন তিনি।

    ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব এবং বিরোধী দলনেতা তথা প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী মানিক সরকার আনুষ্ঠানিকভাবে বিধানসভার নতুন অধ্যক্ষকে স্বাগত জানান এবং প্রথা মেনে তাঁরা রতন চক্রবর্তীকে অধ্যক্ষের আসন পর্যন্ত নিয়ে যান।নতুন অধ্যক্ষ হিসেবে নিযুক্ত হওয়ার পর বিজেপির তরফে তাঁকে শুভেচ্ছা জানানো হয়েছে।

    বিজেপির তরফে এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, “সর্বসম্মতিক্রমে রাজ্যের পবিত্র বিধানসভার অধ্যক্ষ পদে নির্বাচিত হওয়ায় বরিষ্ঠ বিধায়ক শ্রী রতন চক্রবর্তী মহোদয়কে জানাই শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন। আপনার অভিজ্ঞ কর্মদক্ষতায় বিধানসভার কাজ আরও সুচারু রূপে পরিচালিত হবে এই কামনা করি।”

  • বিজেপির রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদারের বিরুদ্ধে মামলা পুলিশের

    স্টাফ রিপোর্টার : কালীঘাটে মুখ্যমন্ত্রীর বাড়ির রাস্তায় বসে পড়ে বিক্ষোভ দেখিয়েছিলেন বৃহস্পতিবার। এর জেরে বিজেপি রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদারের বিরুদ্ধে স্বতঃপ্রণোদিত মামলা রুজু কালীঘাট থানার পুলিশ। ভারতীয় দণ্ডবিধির ১৪৩, ১৪৭ এবং ২৮৩ নম্বর ধারায় মামলা রুজু করা হয়েছে।সুকান্ত ছাড়া ভবানীপুর উপনির্বাচনে বিজেপির প্রার্থী প্রিয়ঙ্কা টিবরেওয়াল ও বিজেপির দুই সাংসদ অর্জুন সিং, জ্যোতির্ময় সিং মাহাতোর বিরুদ্ধে জামিন অযোগ্য ধারায় মামলা রুজু করেছে পুলিশ।

    এদিকে তিন বিজেপি সাংসদের সঙ্গে বাজে ব্যবহারের অভিযোগ তুলে কলকাতা পুলিশের ডিসি সাউথ আকাশ মাঘারিয়ার বিরুদ্ধে লোকসভার স্পিকারের কাছে অভিযোগ জানানো হবে বলে জানানো হয়েছে বিজেপির তরফে।উল্লেখ্য, বৃহস্পতিবার মমতার বাড়ি থেকে ঢিল ছোড়া দূরত্বে দলীয় কর্মীর দেহ রাস্তায় রেখে বিক্ষোভ দেখায় বিজেপি। বিজেপি নেতা মানস সাহার মরদেহ নিয়ে যাওয়ার সময় উত্তেজনা তৈরি হলে ঘটনাস্থলে পুলিশ আসে। পুলিশের সঙ্গে রীতিমতো ধস্তাধস্তি হয় বিজেপি কর্মী-সমর্থকদের।

    রাস্তায় বসে পড়ে বিক্ষোভ দেখান বিজেপি রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার-সহ বাকি বিজেপি কর্মী-সমর্থকরা। মৃতদেহ নিয়ে যাওয়া গাড়ির সামনে বসে পড়েন সুকান্ত মজুমদার। পুলিশের সঙ্গে বচসা হয়। পরে পুলিশ সুকান্ত মজুমদারকে তুলে নিয়ে যায়।এবার সেই ঘটনায় প্রতিবাদ জানাতে গিয়ে মামলায় নিজের নাম জড়ালের বিজেপির রাজ্য সভাপতি।

  • পাকিস্তানের জঙ্গি যোগ নিয়ে মোদীর কাছে উদ্বেগ প্রকাশ কমলার

    সংবাদ সংস্থা : মার্কিন সফরের প্রথম দিনই ভারতের প্রধানমন্ত্রী দ্বিপাক্ষিক বৈঠকে বসেন সেদেশের ভাইস প্রেসিডেন্ট কমলা হ্যারিসের সঙ্গে। আর সেই বৈঠকেই উঠে আসে পাকিস্তান প্রসঙ্গ। সংবাদ সংস্থা এএনআই সূত্রে জানা গিয়েছে, বৈঠকে পাকিস্তানের জঙ্গি যোগ নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেন কমলা। পাশাপাশি ইসলামাবাদের সঙ্গে জঙ্গি সংগঠনগুলির যোগাযোগের উপর বিশেষ নজরদারি চালানো হবে বলেও জানান তিনি। ভারতীয় বিদেশ সচিব হর্ষবর্ধন শ্রীংলা জানান যে মোদী-কমলা বৈঠকে তালিবান প্রসঙ্গও উঠে আসে।

    জানা গিয়েছে, সীমান্ত পারের সন্ত্রাসবাদ কার্যকলাপ প্রসঙ্গে মোদীর সঙ্গে একমন কমলা। এই বিষয়ে শ্রীংলা বলেন, ‘বৈঠকে সন্ত্রাসবাদের বিষয়টি উঠে আসে। ভাইস প্রেসিডেন্ট নিজের থেকেই সেই সময় পাকিস্তানের ভূমিকার বিষয়টি উল্লেখ করেন। তিনি বলেন যে সেখানে সন্ত্রাসী গোষ্ঠী কাজ করছে। তিনি পাকিস্তানকে পদক্ষেপ নিতে বলেছেন যাতে এই গোষ্ঠীগুলি মার্কিন নিরাপত্তা এবং ভারতের নিরাপত্তার উপর প্রভাব না ফেলে।’ মোদী-কমলা বৈঠক প্রসঙ্গে শ্রীংলা আরও বলেন, ‘কমলা হ্যারিস সীমান্ত সন্ত্রাসের সত্যতা মেনে নেন।

    তিনি প্রধানমন্ত্রী মোদীর সঙ্গে সহমত পোষণ করেন যে সত্যি ভারত বিগত কয়েক দশক ধরে সন্ত্রাসবাদের শিকার হয়ে এসেছে। এই ধরনের সন্ত্রাসী গোষ্ঠীর প্রতি পাকিস্তানের সমর্থনকে লাগাম টানার কথাও বলেন তিনি। বিষয়টির উপর নজরদারি চালানোর প্রয়োজনীয়তা সম্পর্কে প্রধানমন্ত্রীর সাথে একমত হন মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট।’ আলোচনায় সন্ত্রাসবাদের সমস্যা ছাড়াও উঠে আসে কোভিড, জলবায়ু পরিবর্তন, প্রযুক্তি খাতে সহযোগিতা সহ সাইবার নিরাপত্তা, মহাকাশ সহ বিভিন্ন বিষয়।’

  • দিল্লির আদালতে চলল গুলি, আইনজীবী বেশে গ্যাংস্টারকে খুন দুষ্কৃতীদের

    সংবাদ সংস্থা : দিল্লির রোহিণী কোর্টে দুষ্কৃতীদের তাণ্ডব।আইনজীবী বেশে আদালতে এসে এলোপাথাড়ি গুলি চালাতে থাকে। সেই ঘটনায় দিল্লির কুখ্যাত গ্যাংস্টার জিতেন্দ্র ওরফে গোগি খুন হয়। এজিকে বন্দুকবাজদের উদ্দেশে পালটা গুলি চালায় পুলিশ। ঘটনায় গ্যাংস্টার ছাড়া আরও দুই জনের মৃত্যুর খবর মিলেছে।কুখ্যাত দুষ্কৃতী জিতেন্দ্র ওরফ গোগিকে শুক্রবার দিল্লির রোহিণী কোর্টে পেশ করার জন্য নিয়ে আসা হয়েছিল।

    কোর্ট নম্বর ২০৬-এ চলছিল শুনানি। সেই সময়ই গোগীর বিরোধী গোষ্ঠী টিল্লুর গ্যাংয়ের দুই জন দুষ্কৃতী উকিলের পোশাকে ছদ্মবেশে আদালতে ঢোকে বলে অভিযোগ। আদালত কক্ষের কাছে গিয়ে গোগির উপর এলোপাথাড়ি গুলি চালায় তারা। জবাবে পুলিশও গুলি চালায়। পুলিশের গুলিতে দুই জন হামলাকারীর মৃত্যু হয় বলে জানা গিয়েছে। গুরুতর ভাবে জখম হয় গোগি। পরে তারও মৃত্যু হয়।মৃত গ্যাংস্টার গোগির বয়স ৩০।

    স্কুল ছেড়ে কম বয়সে জমি-সম্পত্তি বিষয়ে লেনদেন শুরু করে সে। এরপর বেশ কয়েকটি অপরাধমূক মামলার সঙ্গে নাম জড়িয়ে পড়ে গোগির। ২০২০ সালে গোগিকে মহারাষ্ট্রে গ্রেফতার করা হয়। তার বিরুদ্ধে হত্যা, ডজনখানেক চাঁদাবাজি ছাড়াও ডাকাতি, গাড়ি চুরি এবং ডাকাতির মামলা চলছিল।

  • কলকাতার জমা জলে পায়ে পায়ে বিপদ, বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মৃত্যু 12 জনের

    স্টাফ রিপোর্টার : বৃষ্টির জমা জলই এবার আতঙ্ক হয়ে দাঁড়িয়েছে কলকাতা এবং পার্শ্ববর্তী এলাকার বাসিন্দাদের৷ গত কয়েকদিনের প্রবল বৃষ্টিতে জমা জলে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে এখনও পর্যন্ত ১২ জনের মৃত্যু হয়েছে ৷ বুধবার দমদমের মতিঝিল এলাকাতে জমাজলে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মারা যায় দুই কিশোরী শ্রেয়া বণিক (12) এবং অনুষ্কা নন্দী (13)।একইভাবে বুধবার রাতে উত্তর 24 পরগনা জেলার আগরপাড়া তারাপুকুর অঞ্চলে জমা জলে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মারা যায় 65 বছরের প্রৌঢ় দীপক চৌধুরী।

    বাড়ির সামনেই জমা জলের নিচে পড়ে থাকা বিদ্যুতের ছেঁড়া তারের সংস্পর্শে আসেন তিনি এবং তৎক্ষণাৎ তাঁর মৃত্যু হয়।এর আগে গত মঙ্গলবার উত্তর 24 পরগনার খড়দায় ঠিক একইরকমভাবে জমা জলে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মারা যান রাজা দাস, তাঁর স্ত্রী পৌলোমী দাস ও পুত্র শুভ দাস।বৃহস্পতিবার সকালে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে তিন জনের মৃত্যু হয়েছে। মৃতদের এক জনের বাড়ি মালদহে। অন্য দু’জন বেলঘরিয়া এবং আগরপাড়ার বাসিন্দা।

    সোমবার রাতে ত্রাণ দিতে যাওয়ার সময় বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মারা গিয়েছেন দুই যুবক। পূর্ব মেদিনীপুরের ভগবানপুর ১ নম্বর ব্লকের ভুপতিনগর থানার ইটাবেড়িয়া এলাকায় ঘটেছিল এই ঘটনা। মৃতদের নাম প্রদীপ মাইতি (৩১) এবং নন্দন মণ্ডল (২৬)। তাঁদের বাড়ি ভূপতিনগর থানার বাগদিবাঁধ গ্রামে।স্বভাবতই এই ঘটনায় প্রশাসন, স্থানীয় পুরসভা এবং বিদ্যুৎ সরবরাহকারী সংস্থার উপর ক্ষোভ বাড়ছে মানুষের।

    তাঁদের বক্তব্য, কলকাতা সংলগ্ন বহু অঞ্চলে বাতিস্তম্ভের সুইচ বক্স খোলা থাকে। যত্রতত্র বিপজ্জনকভাবে ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকে খোলা তার। ফলত ভরা বর্ষাতে বাড়ে বিপদ। সে কোনও সময় জমা জলে ছেঁড়া তার বা বাতিস্তম্ভের সংস্পর্শে এসে ঘটে যাচ্ছে মর্মান্তিক দুর্ঘটনা। যদিও এই ঘটনার বিষয়ে কোনও মন্তব্য করতে চাননি রাজ্যের বিদ্যুৎমন্ত্রী অরূপ বিশ্বাস।

    বৃদ্ধেরএই ঘটনার ব্যাপারে চুপ রাজ্য বিদ্যুৎ দফতর, সিইএসসি এবং বিদ্যুৎ সরবরাহ সংস্থা ওয়েস্ট বেঙ্গল স্টেট ইলেকট্রিসিটি ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেডের কর্তারাও।

  • ভবানীপুর উপনির্বাচন নিয়ে কমিশনকে হলফনামার নির্দেশ

    স্টাফ রিপোর্টার : রাজ্যের একটি নির্দিষ্ট কেন্দ্রের জন্য কেন উপনির্বাচন ঘোষণা করল নির্বাচন কমিশন? ভবানীপুর উপনির্বাচন নিয়ে দায়ের হওয়া মামলায় এই প্রশ্নের ভিত্তিতেই কমিশনকে হলফনামা দিতে বলল কলকাতা হাই কোর্ট। ভবানীপুরে উপনির্বাচন নিয়ে দায়ের হওয়া মামলার শুনানি ছিল বৃহস্পতিবার। ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতি রাজেশ বিন্দোল এবং বিচারপতি রাজর্ষি ভরদ্বাজের বেঞ্চে ছিল ওই মামলার শুনানি।

    ভবানীপুর উপনির্বাচন প্রসঙ্গে নির্বাচন কমিশনের প্রেস বিবৃতিতে লেখা ছিল, এই নির্বাচন না হলে সাংবিধানিক সংকট দেখা দেবে বলে উল্লেখ করেছেন রাজ্যের মুখ্যসচিব।এর বিরুদ্ধে জনস্বার্থ মামলাকারী সায়ন বন্দ্যোপাধ্যায় আদালতে দাবি করেন, নির্বাচন বন্ধ করতে হবে, এমন কোনও দাবি নেই। কিন্তু ভবানীপুরে উপনির্বাচন না হলে সাংবিধানিক সংকট তৈরি হতে পারে বলে রাজ্যের মুখ্যসচিবের সুপারিশের উল্লেখ নির্বাচন কমিশনকে তার প্রেস বিবৃতি থেকে বাদ দিতে হবে।

    দু’পক্ষের সওয়াল-জবাবের পর প্রধান বিচারপতি কমিশনের কাছে জানতে চান, পশ্চিমবঙ্গের একটি নির্দিষ্ট কেন্দ্রের জন্য কেন উপনির্বাচন ঘোষণা করা হল? এ নিয়ে কমিশনকে হলফনামা জমা দেওয়ার নির্দেশও দিয়েছেন তিনি। ওই হলফনামায় জানাতে হবে, কমিশনের প্রেস বিবৃতির ৬ ও ৭ নম্বর প্যারাগ্রাফ কোন পরিস্থিতিতে তৈরি হল? ভবানীপুর কেন্দ্রে উপনির্বাচন না হলে সাংবিধানিক সংকট তৈরি হবে, এটা কে লিখল?

    নির্বাচন কমিশন নাকি রাজ্যের মুখ্যসচিব? সাংবিধানিক বাধ্যবাধ্যকতা একটি উপনির্বাচনে কীভাবে আসতে পারে? শুক্রবার ফের এই মামলার শুনানি। তার মধ্যেই দিতে হবে হলফনামা।

  • এনকাউন্টারে খতম 1 জঙ্গি

    স্টাফ রিপোর্টার : গুলির আওয়াজে কেঁপে উঠল জম্মু-কাশ্মীরের শোপিয়ান জেলা৷ পুলিশের গুলিতে খতম এক জঙ্গি৷ গোপন সূত্রে জঙ্গিদের লুকিয়ে থাকার খবর পেয়ে বৃহস্পতিবার সকালে শোপিয়ান জেলার কাসু চিতরাগাম এলাকায় তল্লাশি অভিযান শুরু করে যৌথবাহিনী৷ জঙ্গিদের আস্তানার কাছাকাছি নিরাপত্তাবাহিনী পৌঁছাতেই বিকট শব্দে গোলাগুলি শুরু হয়৷

    জবাব দিতে থাকে নিরাপত্তাবাহিনীও৷ গুলি বিনিয়মের সময় এক জঙ্গিকে খতম করে পুলিশ৷মৃত জঙ্গির পরিচয় জানার চেষ্টা করা হচ্ছে৷ কোনও সংগঠনের সঙ্গে যুক্ত ছিল না জানার চেষ্টা করছে পুলিশ৷ ওই এলাকায় তল্লাশি অভিযান জারি রয়েছে৷

  • সাংসদ পদ থেকে ইস্তফা দিতে পারলেন না বাবুল

    স্টাফ রিপোর্টার : গত শনিবার তৃণমূলে-তে যোগ দেওয়ার পর বিজেপি সংসদ পদ থেকে ইস্তফা দেবেন বলে জানিয়েছিলেন প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়। শুধু ইস্তফা দেওয়ার জন্যই দিল্লি উড়ে গিয়েছেন তিনি। সংসদ পদ থেকে ইস্তফাপত্র জমা দেবেন বলে স্পিকার ওম বিড়লার থেকে সময় চান তিনি। কিন্তু বৃহস্পতিবারও স্পিকারের অফিস থেকে সময় পেলেন না তিনি।

    এদিন লোকসভার স্পিকারের অফিস বাবুলকে সময় দিতে পারছে না বলে জানায়। ফলত এনিয়ে দুদিন বাবুলকে স্পিকার অফিসকে ইস্তফা পত্র জমা দিতে চাইলে না বলে দেওয়া হয়। জানা গিয়েছে, ব্যস্ততার কারণে বাবুলকে সময় দিতে পারছেন না স্পিকার।

Back to top button