বিরোধী জোটের নেতৃত্বে মমতাই, পওয়ারকে জবাব তৃণমূলের

সংবাদ সংস্থা: ২০২৪ লোকসভা নির্বাচনের আগে বিজেপি যেমন হ্যাটট্রিকের লক্ষ্যে ঘূঁটি সাজাচ্ছে, তেমনই বিরোধীরাও কোমর বাঁধছে। বিরোধী নেতৃত্ব একত্রে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে কুর্সি থেকে সরাতে মরিয়া। কংগ্রেস-সহ বিভিন্ন দল চাইছে একজোট হয়ে বিজেপিকে ক্ষমতা থেকে সরাতে। সেজন্য তারা বিভিন্ন আঞ্চলিক দলকে নিয়ে চলতে প্রস্তুত।কিন্তু বেঁকে বসেছে কিছু কিছু আঞ্চলিক দল।

তার মধ্যে অগ্রগণ্য অবশ্যই বাংলার তৃণমূল। বাংলার শাসক দলের সঙ্গে কংগ্রেসের সাম্প্রতিক সম্পর্ক একেবারে তলানিতে নেমে গিয়েছে। এই অবস্থায় দুটি দল একসঙ্গে চলবে কী করে, তা নিয়ে রয়েছে বড় প্রশ্ন চিহ্ন। তবে এই অনিশ্চয়তার মধ্যে এনসিপি প্রধান শারদ পাওয়ার এক আশাব্যাঞ্জক বার্তা দিয়েছেন বিরোধীদের জন্য।

শারদ পাওয়ার বলেন, অতীত নিয়ে পড়ে না থেকে কংগ্রেস ও তৃণমূল উভয় পক্ষই বৃহত্তর স্বার্থে হাত ধরাধরি করে হাঁটবে। কংগ্রেস ও তৃণমূল বিরোধী দলগুলির সঙ্গে জোট গঠন করতে প্রস্তুত হবে। তিনি আরও বলেন, আমার বিশ্বাস মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কংগ্রেস ও অন্যান্য বিরোধী দলগুলির সঙ্গে জোট গড়তে নিজেই আগ্রহী হবেন।এদিকে সারা দেশে বিজেপি-বিরোধিতায় প্রধান ‘মুখ’ বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ই।

শরদ পওয়ারের দাবির প্রেক্ষিতে স্পষ্টভাষায় জানিয়ে দিল তৃণমূল কংগ্রেস। এ প্রসঙ্গে তৃণমূল বিধায়ক তাপস রায় বলেন, “জোটে থাকতে আপত্তি নেই তৃণমূলের। তবে, তার নেতৃত্বে থাকবেন মমতা।কারণ, দেশে বিজেপি বিরোধিতার প্রধান মুখ তিনিই।”

Related Articles

Back to top button
error: Content is protected !!