বারুইপুরের বিভিন্ন পুজোয় থিমের ছড়াছড়ি

প্রদীপকুমার সিংহ, বারুইপুর: বারুইপুর ফুলতলা দুধনই সর্বজনীন পুজো কমিটির এবাররের মণ্ডপির থিম বিয়ের সাজে বর-কনে।এই পুজো এবারে ১৮ বছরে পদার্পণ করেছে। প্রগতিতে রাজস্থানের ঘুমোড় নাচ, পদ্মপুকুরে বাংলার লোকশিল্পে ডোকরার কাজ, ময়ূর সহ পেখমের নীল-সবুজের ছটা ভাই ভাই সংঘে, সপ্তপল্লিতে স্বপ্নের দেশে পরি, পাখি ফুটে উঠবে বারুইপুর সর্বজনীন পুজো মণ্ডপে।

পাঁচজন মেয়ে রাজস্থানের পরিচিত ঘুমোড় নাচের উৎসবে মেতে উঠেছে। সঙ্গে কেউ বাজাচ্ছে মাদল। একটুকরো রাজস্থান তুলে আনা হচ্ছে বারুইপুরের প্রগতি সংঘের মণ্ডপে। ৩০ বছরে পা দিয়েছে এই পুজো। ফি বছর চমক নিয়ে হাজির হয় প্রগতি সংঘ। পশ্চিম মেদিনীপুরের শিল্পী সুরজিৎ দাস বলেন, ভাবনা রাজস্থানের ঘুমোড়ের ঘটা।

বারুইপুরের পদ্মপুকুর ইয়ুথ ক্লাবের পুজো বারুইপুরের অন্যতম আকর্ষণীয়। ১০৩ তম বর্ষে বাংলার লোকশিল্পে ডোকরার কাজকেই ফুটিয়ে তোলা হবে মণ্ডপে। শিল্পী গৌরাঙ্গ কুইল্যা বলেন, মণ্ডপে অভিনবত্ব আনতেই ভাবনা এবার লোকশিল্প। রাবার আর ফোমের মাধ্যমে ডোকরার কাজ।বারুইপুরের স্টেশন সংলগ্ন ভাই ভাই সংঘ ফি বছরের মতো এবারও নজরকাড়া থিম নিয়ে হাজির।

৫৩ তম বর্ষে তাঁদের ভাবনা বর্ণিল। সভাপতি ছবি নন্দী বলেন, এক অশুভ আবহ থেকে বেরিয়ে শুভ মুহূর্তের সূচনা, তাই ভাবনা বর্ণিল। আগে দরজার উপরে পেখম লাগানো হত শুভ বার্তা দিতে। তাই ময়ূর সহ পেখমের নানা বর্ণের সমাহার ফুটে উঠবে মণ্ডপে। বারুইপুর সপ্তপল্লি সর্বজনীন দুর্গোৎসব এবার ৪৮ তম বছরে পা দিল।

কমিটির অন্যতম কর্তা আশিস দেবরায় বলেন, স্বপ্নের দেশ ফুটে উঠবে মণ্ডপে। থাকবে ময়ূর থেকে নানা রকম পাখি, ঘোড়া আর প্রচুর ফুল। পরির দল ঘুরে বেড়াবে মণ্ডপে। গণেশ বাইনের তৈরি প্রতিমায় থাকবে কারুকার্য। ছোট থেকে বড় সবার ভালো লাগবে স্বপ্নের দেশ।

বারুইপুর উকিলপাড়া সর্বজনীন দুর্গোৎসব সমিতির পুজো এবারে ৬৬তম বর্ষে পদার্পণ করেছে। এখানে কুমোরটুলির দুর্গা প্রতিমা। সেই সঙ্গে চন্দননগরের আলোকসজ্জা। এই পুজো মণ্ডপে সাঁওতালিদের ধামসা মাদল বাজবে সপ্তমী থেকেই।

Related Articles

Back to top button
error: Content is protected !!