‘মিমি, নুসরতরা লুটেপুটে খাচ্ছে, দল গুরুত্ব দিচ্ছে খারাপ লোকেদের’ বিস্ফোরক প্রতিমন্ত্রী, শোকজ তৃণমূলের

স্টাফ রিপোর্টার : এবার দলের বিরুদ্ধে বিস্ফোরক রাজ্যের ক্রেতা সুরক্ষা প্রতিমন্ত্রী শ্রীকান্ত মাহাতো। শনিবার দলের কর্মীদের নিয়ে ঘরোয়া আড্ডায় বসেছিলেন তিনি। সেখানেই একাধিক বিতর্কিত মন্তব্য করেন। ভাইরাল হওয়া অডিওতে শ্রীকান্তকে বলতে শোনা যায়, “খারাপ লোককে ভাল বলছে দল।

মন্ত্রীদের লোকে চোর বলছে। চোরেদের কথাই শুনছে দল। তাহলে আর আমরা কী করব? ভাল লোকেদের কথা শুনছে না। খারাপ লোকেদের কথা শুনছে দলীয় নেতৃত্ব। দুর্বৃত্ত পরায়ণদের গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে।” তিনি আরও বলেন, “সায়ন্তিকা-মিমি-নুসরত-সায়নীরা এখন দলের সম্পদ। এরা দলের সম্পদ হলে তো দল করা যাবে না। পথ দেখতে হবে।”

বিধায়ক পুরো বিষয়টি দলের শীর্ষ নেতৃত্ব অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় এবং সুব্রত বক্সিদের বুঝিয়েছেন বলেও জানিয়েছেন। তারপরেও সেই কথা গুরুত্ব দেওয়া হয়নি বলে অভিযোগ।যদিও এই ভাইরাল হওয়া অডিওর সত্যতা যাচাই করেনি বিশ্ব সমাচার। সূত্রের খবর, সেই ভিডিও পৌঁছে গিয়েছিল অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছে।

এরপরই বিধায়ককে শোকজের নির্দেশ দেন অভিষেক। মেদিনীপুর এবং ঘাটাল সাংগঠনিক জেলার কো অর্ডিনেটর অজিত মাইতি দলীয় প্যাডে শোকজ করা হয়। এদিকে রবিবার সকালে অজিত মাইতিকে ফোন করে বিধায়ক শ্রীকান্ত ক্ষমা চেয়েছেন বলে জানিয়েছেন অজিত মাইতি।

এ প্রসঙ্গে শ্রীকান্ত মাহাতো জানান, “আমি দলের অনুগত সৈনিক। বিক্ষুব্ধ হওয়ার প্রশ্নই নেই। তবে দলের সব তো আমার মনের মতো হবে না। ঘরোয়া আলোচনায় সেটাই বলেছিলাম। তবে দলের কাছে একান্ত অনুরোধ আমাকে যাতে ভুল না বোঝে।”

Related Articles

Back to top button
error: Content is protected !!