বিজেপি, সিপিএমের মিছিলে উত্তেজনা

স্টাফ রিপোর্টার : বেহাল পুরপরিষেবার অভিযোগ তুলে সিপিএমের অভিযানকে ঘিরে উত্তপ্ত হয়ে উঠল শিলিগুড়ি পুরসভা।শুক্রবার শিলিগুড়ির এয়ারভিউ মোড় থেকে প্রাক্তন মেয়র অশোক ভট্টাচার্যের নেতৃত্বে পুরসভা অভিযানে যায় সিপিএম। পুরসভার সামনে পুলিশি ব্যারিকেড ভাঙে আন্দোলনকারীরা। এ নিয়ে পুলিশের সঙ্গে ব্যাপক ধস্তাধস্তি হয় সিপিআইএম নেতা-কর্মীদের। শেষ পর্যন্ত ব্যারিকেড ভাঙার পর বন্ধ থাকা পুরসভার প্রধান গেটও ভেঙে ফেলে আন্দোলনকারীরা।

তারপর ঢুকে পড়ে পুরসভা ক্যাম্পাসে। দ্বিতীয় গেটেও চলে পুলিশের সঙ্গে আন্দোলনকারীদের মধ্যে ব্যপক ধাক্কাধাক্কি। শেষে পুরসভার সামনে অবস্থান, বিক্ষোভে বসে তারা।এদিন প্রাক্তন মেয়র অশোক ভট্টাচার্য বলেন, ৬ মাস ধরে ক্ষমতায় বসেছে তৃণমূল। নির্বাচনের আগে বহু প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল তারা। কিন্তু চেয়ারে বসার পর কোনও উন্নয়নমূলক কাজ হয়নি শহরে। ভেঙে পড়েছে শহরের নিকাশি ব্যবস্থা।

বহু ওয়ার্ডে পরিশ্রুত পানীয় জল পৌঁছয়নি। রাস্তাঘাটের অবস্থাও বেহাল। অথচ হেলদোল নেই পুরসভা কর্তৃপক্ষের। এমনকী যানজটে নাভিশ্বাস উঠছে শহরবাসীর। এসজেডি-এর ২০০ কোটি টাকার আর্থিক দুর্নীতিকাণ্ডে অভিযুক্তদের গ্রেফতারের দাবি তোলা হয়।অন্যদিকে, নারকেলডাঙায় অন্তঃসত্ত্বাকে মার, রাজ্যে একের পর এক নিয়োগ দুর্নীতির প্রতিবাদে এদিন নারকেলডাঙা, ভবানীপুরে পথে নামে বিজেপি।

দুপুর তিনটেয় মিছিলের ডাক দেয় বিজেপি মহিলা মোর্চা। দুপুর আড়াইটে থেকে যতীন দাস পার্ক মেট্রো স্টেশনের সামনে হাজরা মোড়ে জমায়েন হন বিজেপি কর্মী-সমর্থকরা। অভিযোগ, সভানেত্রী তনুশ্রী চক্রবর্তীর নেতৃত্বে মিছিল শুরুর আগেই তাতে বাধা দেয় পুলিশ। মহিলা পুলিশ না থাকায় সত্ত্বেও মহিলা মোর্চার কর্মী-সমর্থকদের টেনে প্রিজন ভ্যানে তোলার চেষ্টা করা হয়। মেট্রো স্টেশনের ভিতরে ঢুকেও বিজেপি কর্মী-সমর্থকদের পাকড়াও করা হয় বলেও দাবি গেরুয়া শিবিরের।

এরপর ভবানীপুরে অগ্নিমিত্রা পলের নেতৃত্বে বিক্ষোভ কর্মসূচি শুরু করে বিজেপি। আগাম প্রস্তুতি না থাকায় বিক্ষোভ সামাল দিতে বেশ কিছুটা বেগ পেতে হয় বিজেপি কর্মী-সমর্থকদের। বিজেপির দাবি, জোর করে দলীয় কর্মী-সমর্থকদের আটক করা হয়। চলন্ত বাস দাঁড় করিয়ে যাত্রী নামিয়ে দেওয়া হয়। বিজেপি কর্মী-সমর্থকরা জোর করে ধাক্কা দিয়ে ওই বাসে তোলা হয়। এরপর বেশ কয়েকজন বিজেপি কর্মী-সমর্থককে আটক করে লালবাজারে পাঠানো হয়।

এদিকে, এদিন ‘চোর ধরো, জেল ভরো’ কর্মসূচিতে পৈলানে মিছিল করে বিজেপি। দিলীপ ঘোষের নেতৃত্বে মিছিলে পা মেলান কয়েকশো বিজেপি কর্মী-সমর্থক। মিছিল শেষে রাজ্যের শাসকদলকে একহাত নেন বিজেপির সর্বভারতীয় সহ সভাপতি।

Related Articles

Back to top button
error: Content is protected !!