সমবায় ব্যাঙ্কে ঘনিষ্ঠদের চাকরি, মন্ত্রী অরূপ রায়ের বিরুদ্ধে মামলা

স্টাফ রিপোর্টার : নিয়োগ দুর্নীতিতে এবার নাম জড়াল রাজ্যের সমবায় মন্ত্রী অরূপ রায়ের।সমবায় ব্যাঙ্কের নিয়োগ প্রক্রিয়ায় প্রভাব খাটানোর অভিযোগ উঠেছে রাজ্যের সমবায় মন্ত্রীর বিরুদ্ধে। যা নিয়ে হাইকোর্টে মামলাও দায়ের হয়েছে।অভিযোগ, ২০১৯ সালে তমলুক – ঘাটাল কেন্দ্রীয় সমবায় ব্যাঙ্কে ৫২টি শূন্যপদে নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি জারি হয়।

আবেদন করেন ২০৩৫ জন। কিন্তু তাদের মধ্যে অন্তত ১০০ জনের নাম আবেদনের মূল্য চোকানোর তালিকায় নেই। অভিযোগ, ওই আবেদনকারীদের জায়গায় তৃণমূল নেতাদের ঘনিষ্ঠদের নিয়োগ করা হয়। যারা চাকরির জন্য আবেদন করেননি এমন ব্যক্তিও রয়েছে তার মধ্যে।

নাম রয়েছে পূর্ব মেদিনীপুর জেলা পরিষদের প্রাক্তন সভাধিপতি দেবব্রত দাসের ভাইপো। ব্যাঙ্কের চেয়ারম্যান গোপাল মাইতির ভাইপো। ব্যাঙ্কের সিইও প্রণয় চক্রবর্তীর ভাইপো। অরূপ রায় ঘনিষ্ঠ সত্য সামন্তের বোন। ব্যাংকের সচিব কুশল কুলভির ভাইপো। ব্যাঙ্কের আধিকারিক নিমাই অধিকারীর মেয়ে ও ব্যাঙ্কের আধিকারিক তপন কুমার কুলিয়ার ছেলে।

হলফনামায় দাবি করা হয়েছে, ৫২টি শূন্যপদের জন্য বিজ্ঞপ্তি জারি হলেও বেআইনি নিয়োগ করতে সংখ্যাটা পৌঁছয় ১৩৪-এ। কো অপারেটিভ সার্ভিস কমিশনকে পাশ কাটিয়ে নিয়োগ দেওয়ার জন্য ব্যাঙ্ককে ২ বার অনুমতি দিয়েছেন সমবায় মন্ত্রী অরূপ রায়।যদিও নিজের বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ অস্বীকার করেছেন অরূপ রায়।

তিনি বলেছেন, দুর্নীতির কোনও অভিযোগ থাকলে তদন্ত হবে। নিয়োগ প্রক্রিয়ায় তিনি কোনও প্রভাব খাটাননি বলেও দাবি করেছেন মন্ত্রী। তদন্তে যদি কেউ দোষী প্রমাণিত হয়, তবে তাঁর শাস্তির বন্দোবস্ত করা হবে বলে আশ্বাস দিয়েছেন অরূপ রায়।

Related Articles

Back to top button
error: Content is protected !!