‘মিডিয়া ট্রায়াল করবেন না’, বিচারপতিদের অনুরোধ মমতার

স্টাফ রিপোর্টার : নিউ সেক্রেটারিয়েটের বি ব্লকে উদ্বোধন হল কলকাতা হাইকোর্টের নতুন বিভাগের।বৃহস্পতিবার নব মহাকরণ বা নিউ সেক্রেটারিয়েট ভবনের একটি অংশ, ব্লক বি-এর ১ থেকে ৯ তল পর্যন্ত হাইকোর্টের কাজের জন্য হস্তান্তর করা হল। এদিনের অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন কলকাতা হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি প্রকাশ শ্রীবাস্তব। রাজ্য সরকারের তরফ থেকে উপস্থিত ছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও মন্ত্রী মলয় ঘটক।

এদিন হাইকোর্টের প্রধানবিচারপতি-সহ অন্যান্য বিচারপতিদের উপস্থিতিতে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘‘পুজোর আগে এটা আমরা করতে পেরেছি। আমরা এর আগে জায়গায় সমস্যা নিয়ে আলোচনা করছিলাম। দিল্লিতেও আলোচনা করেছিলাম। আমাকে প্রধান বিচারপতি বলেছিলেন, যাতে হাইকোর্টের কাছে বিল্ডিং হয়।এটা ভাল দেখায় না বিচারপতিরা জায়গা পাবেন না, তাদের জন্য। এটা বিচারের জন্য জায়গা।

কিন্তু মনে রাখতে হবে বিচার এক পক্ষ হয় না। বিচার নিরপেক্ষ হয়। মানুষ আশা করে বিচার এর। আগে রাজ্যে ৮৮টা ফার্স্ট ট্র্যাক কোর্ট ছিল। সে গুলো বন্ধ করে দেওয়া হয়েছিল। তখনও আমাদের সরকার আসে। আমরা পরে ৮৮টা ফাস্ট ট্র্যাক কোর্ট রাজ্যে সরকারের টাকাতে শুরু করেছি।’’

এদিনের অনুষ্ঠানে মুখ্যমন্ত্রীর বক্তব্যে উঠে আসে মিডিয়া ট্রায়াল। তিনি বলেন, ‘‘আমার মনে হয়, মিডিয়া ট্রায়াল বন্ধ হওয়া উচিত, প্রধান বিচারপতিকে অনুরোধ করব, কারওর মানহানি যাতে না হয়, সে দিকে খেয়াল রাখতে।’’এরপর সাংবাদিকদের উদ্দেশে মুখ্যমন্ত্রীর বক্তব্য, ”মিডিয়া ট্রায়াল বন্ধ করুন।

সত্যি খবর দেখান। আমার বিরুদ্ধে খবর হলেও দেখান, কিছু মনে করব না। কিন্তু সম্মানহানি করবেন না।” বিচারপতিদের তিনি অনুরোধ জানান, ”অনেক মামলা বকেয়া রয়েছে, তার দ্রুত নিষ্পত্তি করুন। আরও বেশি করে মহিলা বিচারপতি নিয়োগ করা হোক। আমাদের রাজ্যে খুব কমই মহিলা বিচারপতি। আমরা আরও দেখতে চাই।”

Related Articles

Back to top button
error: Content is protected !!