প্রশান্ত কিশোরের সঙ্গে দূরত্ব তৈরি হয়েছে তৃণমূলের! রাজ্য রাজনীতিতে জল্পনা

স্টাফ রিপোর্টার : একুশের বিধানসভা নির্বাচন মেটার পর প্রশান্ত কিশোর তৃণমূলের হয়ে জাতীয় ক্ষেত্রে সক্রিয় হয়ে উঠেছিলেন। তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে মোদী বিরোধী প্রদান মুখ করে তুলতে তিনি বদ্ধপরিকর হয়ে ওঠেন। কিন্তু বর্তমানে তৃণমূল যখন ঘরোতর সমস্যায় তখন ভোট কৌশলী প্রশান্ত কিশোর নিষ্ক্রিয়।

তাঁকে দলের হয়ে কোনও ভূমিকাতেই দেখা যাচ্ছে না। এমনকী তৃণমূল নিয়ে গত তিনমাসে তাঁকে সে অর্থে কোনও মন্তব্য করতেও দেখা যায়নি। স্বভাবতই প্রশ্ন উঠে পড়েছে প্রশান্ত কিশোরের হল কী! তিনি কি তবে সংগোপনে তৃণমূলের সঙ্গে দূরত্ব তৈরি করে দিলেন। তৃণমূলের রাজ্যস্তরেও তিনি নেই, আর জাতীয়স্তরেও তাঁকে কোনও সক্রিয় ভূমিকায় দেখা যাচ্ছে না।

সম্প্রতি তিনি বিহারের পালাবদল নিয়ে বিবৃতি দিয়েছেন। নীতীশ কুমারের সিদ্ধান্ত নিয়ে প্রতিক্রিয়া দিয়েছেন। কিন্তু তিনি বাংলা নিয়ে বা তৃণমূল নিয়ে কোনও মন্তব্য করেননি। তাতেই প্রশান্ত কিশোরের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন উঠছে।খাতায়-কলমে এখনও তিনি তৃণমূলেরও ভোট কৌশলী। ২০২৬ পর্যন্ত তাঁর সঙ্গে চুক্তি তৃণমূলের।

কিন্তু একুশ-পরবর্তী কোনও নির্বাচনেই তাঁকে দেখা যায়নি। দেখা যায়নি তৃণমূলের হয়ে কোনও কর্মসূচি রূপায়ণেও। কিংবা বর্তমানে যে দুর্নীতির জাল বিছনো হয়েছে, তা কী করে কাটিয়ে উঠবে তৃণমূল, তারও কোনও রূপরেখা দেননি তিনি।যদিও প্রশান্ত কিশোরের কংগ্রেস-সখ্যতা পর্বে মমতা দাবি করেছিলেন, তিনি তৃণমূলের ভোট কৌশলীই থাকছেন।

Related Articles

Back to top button
error: Content is protected !!