মোদির সঙ্গে বৈঠকে প্রাপ্য বকেয়া দ্রুত মিটিয়ে দেওয়ার অনুরোধ মমতার

স্টাফ রিপোর্টার: প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর বাসভবনে গিয়ে তাঁর সঙ্গে একান্তে বৈঠক করলেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।সূত্রের খবর, শুক্রবার প্রধানমন্ত্রীর বাসভবনে প্রায় ৪০ মিনিট ধরে তাঁদের কথা হয়েছে বলে খবর।প্রধানমন্ত্রীকে হলুদ গোলাপের তোড়া ও মিষ্টি উপহার দেন মমতা। দেওয়া হয় বাটিকের নকশা করা একটি উত্তরীয়ও। এদিনের এই বৈঠক নিয়ে গত কয়েক দিন ধরেই চড়ছে রাজনীতির পারদ৷

বিরোধীদের অভিযোগ, ইডি, সিবিআই-এর হাত থেকে বাঁচতেই দিল্লিতে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক করেছেন মমতা৷ বাম, কংগ্রেস অবশ্য এখনও তাদের ‘সেটিং’ তত্ত্বে অনড় রয়েছে৷ উলটোদিকে, তৃণমূল নেতৃত্বের দাবি, কেন্দ্রের কাছে রাজ্যের যে কোটি কোটি টাকা বকেয়া পড়ে রয়েছে, তা আদায় করতেই মমতার এই দিল্লি সফ ৷সূত্রের দাবি, এদিনের এই বৈঠকে একাধিক বিষয় নিয়ে কথা বলেছেন মোদি ও মমতা ৷

সূত্রের খবর কেন্দ্রের কাছে যে বিপুল অঙ্কের টাকা বকেয়া রয়েছে তা মিটিয়ে দেওয়ার দাবি তিনি জানিয়েছেন। পাশাপাশি একাধিক কেন্দ্রীয় প্রকল্প বাংলাতে এসে নাম বদলে যায় বলে বার বার বিভিন্ন মহলে অভিযোগ উঠেছে। সূত্রের খবর, আলোচনা প্রসঙ্গে সেই কথাও ওঠে এদিন।প্রধানমন্ত্রীকে তিন পাতার চিঠিতে রাজ্যের বকেয়া সমস্ত হিসেব বিস্তারিতভাবে দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী।

এই চিঠিতে মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন, কোভিড, প্রাকৃতিক দুর্যোগ এবং কেন্দ্রীয় প্রকল্প মিলিয়ে কেন্দ্রের কাছে রাজ্যের বকেয়া ১ লক্ষ ৯৬৮ কোটিরও বেশি।এই বকেয়া যাতে দ্রুত মিটিয়ে দেওয়া হয়, তা নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর কাছে বারবার অনুরোধ জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী।মোদীর সঙ্গে আলোচনা সেরে বেরিয়ে সোজা রাষ্ট্রপতি ভবনে চলে যান মুখ্যমন্ত্রী। সেখানে দ্রৌপদী মুর্মুর সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন। তাঁকে হলুদ গোলাপের তোড়া দিয়ে শুভেচ্ছা জানান মমতা।

সাক্ষাতের পর সর্বভারতীয় তৃণমূল কংগ্রেসের তরফে টুইট করে সেই খবর জানানো হয়েছে। তবে শুক্রবারের পর আজও এক মঞ্চে দেখা যেতে পারে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ও নরেন্দ্র মোদিকে। স্বাধীনতার ৭৫ তম বছর পূর্তি উপলক্ষে রাজনৈতিক ভবনে আয়োজিত এক বৈঠকে আর যাবেন মমতা। সেই বৈঠকের চেয়ারপারসন মোদি। তাই আজও মমতা মোদি সাক্ষাত হতে পারে রাজধানীতে।

Related Articles

Back to top button
error: Content is protected !!