নতুন অশোক স্তম্ভের সিংহরা ‘হিংস্র’! প্রতীক নিয়ে বাড়ছে বিরোধীদের ক্ষোভ

সংবাদ সংস্থা: সোমবার নতুন সংসদ ভবনের অশোকস্তম্ভের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। এরপর থেকেই শুরু হয়েছে বিতর্ক। বিরোধীদের দাবি, জাতীয় প্রতীক উন্মোচন করে সাংবিধানিক নিয়ম লঙ্ঘন করেছেন মোদি। তাদের অভিযোগ, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী নতুন সংসদ ভবনের মাথায় যে জাতীয় প্রতীকটির সম্প্রতি উন্মোচন করেছেন, সেটি আসলটির থেকে আকারে-প্রকারে অনেক আলাদা।

এবং পরোক্ষে মোদী সরকারের চরিত্রই ফুটিয়ে তুলছে।এই মর্মে একটি টুইট করেছে রাষ্ট্রীয় জনতা দল। তারা লিখেছে, সারনাথের মন্দিরের যে অশোক স্তম্ভকে ভারতের জাতীয় প্রতীক হিসেবে গ্রহণ করা হয়েছিল, তার সিংহটি অনেক সৌম্য এবং শান্ত স্বভাবের। তুলনায় নতুন সংসদ ভবনের উপরের নতুন অশোক স্তম্ভের মূর্তিটি হিংস্র। তাদের দেখে মনে হচ্ছে গিলে খেতে আসছে।

তবে আরজেডি একা নয়, প্রতীক-বিতর্কে কেন্দ্রের সমালোচনা করেছেন তৃণমূল সাংসদ জহর সরকার ও মহুয়া মৈত্র ।জহর সরকারের দাবি, “জাতীয় প্রতিকের অবমাননা, মহান ভারতীয় সম্রাট অশোকের সিংহ। মূল সিংহটি আত্মবিশ্বাসী এবং সুন্দর। পাশেরটি মোদির ভার্সান- নতুন সংসদ ভবনের।

রাগী, অযথা আক্রমনাত্মাক, স্থাপত্য হিসেবেও সামঞ্জস্যহীন। লজ্জার। এখুনি এটিকে পরিবর্তন করা হোক।”জহর সরকারের মতো মহুয়া মৈত্রও পুরনো অশোকস্তম্ভের সিংহ ও নয়া জাতীয় প্রতীকের সিংহের ছবি পাশাপাশি পোস্ট করেন। তবে আলাদা করে কিছু লেখেননি মহুয়া।

Related Articles

Back to top button
error: Content is protected !!