শের স্ত্রীকে ভালবাসে, ও হাত কাটতেই পারে না, আদালতে দাবি আইনজীবীর

স্টাফ রিপোর্টার: স্ত্রী রেণু খাতুনের হাত কেটে নেওয়ার অভিযোগে অভিযুক্ত শের মহম্মদকে নিয়ে আদালতে নয়া দাবি তাঁর আইনজীবীর।বুধবার শের মহম্মদকে কাটোয়া মহকুমা আদালতে হাজির করানো হয়েছিল। ধৃত শের মহম্মদ কোনও আইনজীবী দিতে পারেনি।

তাই ‘লিগাল এড’-এর পক্ষ থেকে শ্রেয়া দাস নামে এক আইনজীবী শের মহম্মদের হয়ে আদালতে সওয়াল করেন। তিনি বিচারককে বলেন, ‘‘শের মহম্মদকে ফাঁসানো হয়েছে। কারণ আমার মক্কেল তার স্ত্রীকে খুবই ভালবাসত। সে স্ত্রীর হাত কাটতে পারে না।’’ বিচারক যদিও শের মহম্মদকে সাত দিন পুলিশি হেফাজতে রাখার নির্দেশ দিয়েছেন।

পাশাপাশি কাটোয়া আদালতে বুধবার হাজির করানো হয়েছিল শের মহম্মদের বাবা শেখ সিরাজ এবং মা মেহেরনিকা বিবিকেও। তাদের দু’জনকে ১৪ দিনের জন্য জেল হেফাজতের নির্দেশ দিয়েছেন কাটোয়া মহকুমা আদালতের বিচারক।

Related Articles

Back to top button
error: Content is protected !!