ধিক্কার মিছিল থেকে বিজেপি ও আইএসএফকে হুশিয়ারি সওকত মোল্লার

সত্যজিৎ মন্ডল, ভাঙড় : দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধি ও ১০০ দিনের কাজের টাকা না দেওয়ায় তৃণমূল কংগ্রেসের পক্ষ থেকে ভাঙড়ে ধিক্কার মিছিল বের করা হয়। ভাঙড় একের ‘এ’ যুব তৃণমূল কংগ্রেস নেতা বাদল মোল্লার উদ্যোগে ভাঙড় বাজার থেকে ঘটকপুকুর পর্যন্ত ধিক্কার মিছিল অনুষ্ঠিত হয়।

এই মিছিলে উপস্থিত ছিলেন ক্যানিং পূর্বের বিধায়ক সওকত মোল্লা, বাহারুল ইসলাম, যুব সভাপতি বাদল মোল্লা, মীর তাহের আলী সহ একাধিক নেতৃত্বরা। বিগত বেশ কিছু মাস ধরে ১০০ দিনের কাজের টাকা কেন্দ্রীয় সরকার রাজ্যকে পাঠাচ্ছে না। পাশাপাশি প্রত্যেক দিনই লাগাম ছাড়া দ্রব্য মূল্য বৃদ্ধি।

এই সব বিষয় গুলিকে তুলে ধরে এদিনের এই ধিক্কার মিছিল বলে জানান যুব নেতা বাদল মোল্লা। এদিন এই মিছিলের পর ঘটকপুকুরে পথ সভাতে উপস্থিত হয়ে সওকত মোল্লা বিজেপি সরকারের বিরুদ্ধে তীব্র ক্ষোভ উগরে দেন। বিজেপি সরকার রাজ্য সরকারকে অপদস্ত করার চেষ্টা করছে বলেও তিনি জানান। পাশাপাশি এলাকার বিধায়ক নওসাদ সিদ্দিকীকেও তীব্র ভৎসনা করেন সওকত।

তিনি জানান, ধর্মীয় ভাবাবেগকে কাজে লাগিয়ে একবার ভোটে জেতা যায়। বারবার সেটা সম্ভব নয়। আগামী পঞ্চায়েত ভোটে এলাকায় আইএসএফকে দেখা যাবে না। প্রত্যেকটি আসনে তৃণমূল কংগ্রেসই জিতবে। একই ইস্যুকে কেন্দ্র করে এদিন ভাঙড় বিজয়গঞ্জ বাজারে ধিক্কার মিছিল করেন আরাবুল ইসলাম। কয়েক হাজার দলীয় কর্মীদের নিয়ে তিনি কাঠালিয়া থেকে বিজয়গঞ্জ বাজার পর্যন্ত মিছিল করেন।

এই মিছিলে উপস্থিত ছিলেন, তৃণমূল নেতা হাকিমূল ইসলাম, ওদুদ মোল্লা, আব্দুল মমিন, প্রদীপ মণ্ডল সহ একাধিক নেতৃত্ব। বিজেপি সরকার ও আইএসএফ এর বিরুদ্ধে চরম হুশিয়ারি দিয়ে হাকিমূল ইসলাম বলেন, আইএসএফ খুব লাফালাফি করছে। দলের নির্দেশ পেলে নিউটাউন বর্ডার পেরুতে পারবেনা নওশাদ সিদ্দিকীরা।

পঞ্চায়েত ভোটে লড়াই হবে। সবকটি আসনেই তৃণমূল কংগ্রেস জয়লাভ করবে। তবে এদিনের তৃণমূল কংগ্রেসের এই কর্মসূচির পরিপেক্ষিতে এলাকার বিধায়ক নওসাদ সিদ্দিকী জানান, সময় আসলে উত্তর মানুষই দেবে। তৃণমূল কংগ্রেস ভয় পেয়ে এসব বলছে।

Related Articles

Back to top button
error: Content is protected !!