বৃষ্টির জন্য চাতক পাখির মতো দিন গুনছে দক্ষিণ ২৪ পরগনার মানুষ

বিশ্ব সমাচার, বারুইপুর: মাসকয়েক আগেও বৃষ্টির ঠেলায় চোখে অন্ধকার দেখছিল দক্ষিণ ২৪ পরগনার মানুষ। এখন আর বৃষ্টির নামগন্ধ নেই। প্রাণ ওষ্ঠাগত। একে গরমে রাতে ঘুমোন মুশকিল। তার উপর আবার রোদের তেজ। সব মিলিয়ে একেবারে মানুষের নাজেহাল অবস্থা জেলাজুড়ে। দু’-একদিন ধরে আকাশের মুখ ভার। মেঘ জমছে। ব্যাস, ওইটুকুই।

তারপরই ঝলমলে রোদ। আর তার সাথে তাপপ্রবাহ। যাঁরা কর্মসূত্রে বাইরে বেরোচ্ছেন, তাঁদের অবস্থা খারাপ।
বাংলা নববর্ষের পর থেকে গরম আরও বেড়েছে। তেষ্টা মেটাতে দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলাজুড়ে ঠান্ডা পানীয়ের দোকানে ভিড় দেখা গেল। আখের রস থেকে তরমুজের দোকানে ভিড়। বারুইপুর, সোনারপুর, ক্যানিংসহ বিভিন্ন জায়গায় বাসস্ট্যান্ড সংলগ্ন এলাকায় ঠান্ডা পানীয়ের দোকানে ভিড়। অনকেই ঠান্ডা শরবত, কেউ আবার ডাবের জল, কেউ আখের রস পান করছেন।

এই খরতাপ থেকে রেহাই কবে মিলবে, কে জানে! বৃষ্টির জন্য মানুষ চাতক পাখির মতো আকাশ পানে চেয়ে রয়েছে।
বৃষ্টি পড়লে কিছুটা স্বস্তি মিলতে পারে। তবে এখনও পর্যন্ত জেলায় বৃষ্টির নামগন্ধ নেই। চাষবাসেরও ক্ষতি হচ্ছে। কৃষিজীবী থেকে সব স্তরের মানুষ এখন তাই বৃষ্টি চাইছে।

Related Articles

Back to top button
error: Content is protected !!