মৌসুনিতে বিদ্যুৎ দিয়ে ষাঁড় মেরে ফেলার অভিযোগ উঠল জমির মালিকের বিরুদ্ধে

রবীন্দ্রনাথ মণ্ডল ও অমিত মণ্ডল, নামখানা:
বিদ্যুতের ছোবল লাগিয়ে ষাঁড় মেরে ফেলার অভিযোগ উঠল নামখানার মৌসুনিতে। ঘটনাটি ঘটেছে মঙ্গলবার গভীর রাতে। স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, মৌসুনির বাগডাঙার বাসিন্দা সুবীর মাইতি তাঁর নিজের জমিতে ধান চাষ করেছিলেন। সেই ধানগাছ প্রত্যহ ষাঁড় খেয়ে যেত বলে অভিযোগ। মঙ্গলবার গভীর রাতে সেই জমিতে ধান খেতে গিয়ে একটি ষাঁড় মারা যায়। স্থানীয় বাসিন্দাদের দাবি, বিদ্যুৎস্পৃষ্ট করে পরিকল্পনামাফিক ওই ষাঁড়টিকে মেরে ফেলা হয়েছে।

স্থানীয় বাসিন্দাদের অভিযোগ, পরিকল্পনামাফিক জমির চারপাশে লোহার তারের বেড়া দিয়ে কারেন্ট সংযোগ করে দেওয়া হয়। তারপর যখন ওই জমিতে ধানগাছ খেতে ষাঁড়টি গিয়েছিল, ঠিক তখনই লোহার তারের বেড়ায় বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়। ষাঁড়টির মৃত্যু হয়। স্থানীয় বাসিন্দারা তদন্তের মাধ্যমে দোষীর শাস্তি চেয়েছেন।এ বিষয়ে ওই জমির মালিক সুবীর মাইতি বলেন, কারেন্ট লেগে ষাঁড়টি মারা গিয়েছে, এ কথা সত্য। কিন্তু আমি ইচ্ছে করে তা ঘটাইনি। আমার ওই চাষের জমিতে আলো দেওয়া ছিল। আমি আমার বাড়ির কারেন্ট থেকে ওই আলো জ্বালাতাম। জমির চারপাশে লোহার তারের বেড়া ছিল।

আমি ওই লোহার তারের বেড়া জড়িয়ে বৈদ্যুতিক তার নিয়ে গেছিলাম। কিন্তু দুর্ভাগ্যবশত লোহার বেড়ার এক জায়গায় তারটি ফিউজ হয়ে যায়। আর আমার অজান্তে লোহার তারে বিদ্যুৎ সংযোগ হয় যায়। আমার অজান্তে ষাঁড়টি ধান গাছ খেতে গেলে লোহার তারে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মারা যায়। আমার অনিচ্ছাকৃত ভাবে ঘটনাটি ঘটেছে। যাই হয়ে থাক না কেন, আমি ভুল স্বীকার করে নিচ্ছি। এই ঘটনায় ওই এলাকায় চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়েছে।

Related Articles

Back to top button
error: Content is protected !!