নেতাইয়ে যাওয়ার পথে শুভেন্দু অধিকারীকে বাধা পুলিশের

স্টাফ রিপোর্টার : 2007 সালের 7 জানুয়ারি পূর্ব মেদিনীপুরের নন্দীগ্রামে ভরত মণ্ডল, বিশ্বজিৎ মাইতি ও শেখ সেলিম নামে তিনজনকে গুলি করে খুন করা হয়৷তারপর থেকে প্রতি বছর স্থানীয় সোনাচূড়া এলাকায় ভূমি উচ্ছেদ প্রতিরোধ কমিটি শহিদ দিবসের আয়োজন করে৷ নন্দীগ্রামে বরাবর ওই অনুষ্ঠানে হাজির হন শুভেন্দু অধিকারী৷ শুক্রবার নেতাইয়ে যাওয়ার পথে শুভেন্দু অধিকারীকে আটকাল পুলিশ।

পুলিশের সঙ্গে বচসায় জড়িয়ে পড়েন বিরোধী দলনেতা।সূত্রের খবর, আজকে নেতাইয়ে কর্মসূচি ছিল বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারীর। সেখানে যাওয়ার পথে বিরোধী দলনেতার কনভয় আটকে দেওয়া হয়। পুলিশের বক্তব্য, শুভেন্দু অধিকারীর সঙ্গে যে কনভয় ছিল তা পুলিশ গন্তব্যস্থলে যেতে দেবে না। একা যদি শুভেন্দু যান তবেই তিনি অনুমতি পাবেন। এদিকে, একা বিরোধী দলনেতা ঘটনাস্থলে যেতে চাননি। তিনি তাঁর সঙ্গে যাঁরা ছিলেন তাঁদের প্রত্যেককে নিয়েই নেতাইয়ে যেতে চেয়েছিলেন।

তার ফলে পুলিশ যেতে দেয়নি বলেই প্রাথমিক ভাবে জানা গিয়েছে।তাই লালগড় ঢোকার মুখে ঝিটকার জঙ্গল থেকে ফিরে এসে ভিমপুরে অস্থায়ী শহিদ বেদী তৈরি করে নেতাইয়ের শহিদদের উদ্দেশে স্মৃতি তর্পন করলেন শুভেন্দু। পাশাপাশি করেন মাল্যদান। এছাড়া নেতাইয়ে যাঁরা শহিদ হয়েছিলেন তাঁদের উদ্দেশে বক্তব্য রাখেন। পরবর্তীতে তিনি সিধু-কানুর উদ্দেশেও শ্রদ্ধা জানান।

Related Articles

Back to top button
error: Content is protected !!