ইন্দাসের গ্রামে রোগী দেখছে বাঁদর ডাক্তার, ভিজিট ২৫০ টাকা পর্যন্ত, গ্রেপ্তারের দাবি

বিশ্ব সমাচার, বাঁকুড়া: একটি বাঁদর একের পর এক রোগী দেখে যাচ্ছে। ভিড় করে তা দেখছেন গ্রামবাসীরা। একবিংশ শতাব্দীর দোরগোড়ায় দাঁড়িয়ে এই ভয়ঙ্কর চিত্রের সাক্ষী থাকলো বর্তমান সভ্য সমাজ। ভারতীয় বিজ্ঞান ও যুক্তিবাদী সমিতির কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য জানান, অবিলম্বে বাঁদরের মালিককে গ্রেপ্তার করা দরকার প্রশাসনের ।কোনও ডাক্তারবাবুর কাছে নয়, রোগীরা ভিড় জমিয়েছে একটি বাঁদরের কাছে এবং বাঁদর রোগী দেখছে— ঘটনাটা যতই অবাস্তব মনে হোক না কেন, বাস্তব চিত্র এটাই।

বাঁদর ডাক্তারের ভিজিট যেমন রোগ তেমন। টাকা নিচ্ছে বাঁদরের মালিক সাগর। কারও কাছ থেকৈ ২১ টাকা, ১০০ টাকা আবার কারও কাছ থেকে ২০০ বা ২৫০ টাকা। এমন দৃশ্য দেখা গেল বাঁকুড়া জেলার ইন্দাস ব্লকের জয়নগর গ্রামে । ওই বাঁদর ডাক্তার এবং ডাক্তার মালিকের বাড়ি নদীয়া জেলার চাপড়া থানার নবাবগঞ্জে।চিকিৎসা ব্যবস্থায় অভূতপূর্ব আধুনিকরণের যুগেও এরকম মধ্যযুগীয় ভাঁওতাবাজির সাক্ষী থাকল ইন্দাস ব্লকের জয়নগর গ্রামের বহু মানুষ।

ভারতীয় বিজ্ঞান ও যুক্তিবাদী সমিতির কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য সৌম্য সেনগুপ্ত জানান, বাঁদরটা যেভাবে মানুষের রোগ নির্ণয় করছে এবং তার মালিক রোগীকে বুঝিয়ে দিচ্ছে, তাতে প্রতারণা স্পষ্ট বোঝা যাচ্ছে। অবিলম্বে প্রশাসনের উচিত ওই ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করা।

Related Articles

Back to top button
error: Content is protected !!