বিমানবন্দর লাগোয়া এলাকায় মিলল যুবক-যুবতীর রক্তাক্ত দেহ

স্টাফ রিপোর্টার : বিমানবন্দর লাগোয়া এলাকা থেকে উদ্ধার হল এক যুবক ও যুবতীর রক্তাক্ত দেহ। কিছুটা দূরে ঝোপের ভিতর পাওয়া গেল একটি দামী মোটর বাইক। ঘটনাকে কেন্দ্র করে তীব্র চাঞ্চল্য ছড়াল মালদহে।পুলিস সূত্রে খবর, মৃতেরা হলেন রনি দাস ও স্বম্ভিকা রায়। আইটিআইটি কলেজে পড়তেন রনি। তাঁর বাড়ি মালদহের ইংরেজবাজারের বাগবাড়ি এলাকার দুর্গাপল্লিতে। স্বম্ভিকাও ইংরেজবাজারেরই তেলিপুকুর এলাকার বাসিন্দা।

মালদহ কলেজের প্রথম বর্ষের ছাত্রী ছিলেন তিনি। সকালে বিমানবন্দর লাগোয়া এলাকায় দু’জনের রক্তাক্ত মৃতদেহ পড়ে থাকতে পড়ে থাকতে দেখেন স্থানীয় বাসিন্দারা। সঙ্গে সঙ্গে খবর দেওয়া হয় থানায়। দুটি মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তে পাঠিয়েছে পুলিস। ঘটনাস্থলে থেকে কিছুটা দূরে পাওয়া গিয়েছে একটি দামী মোবাইল।মৃত যুবতীর বাবা জানিয়েছেন, সোমবার রাতে বাড়ি থেকে বেরিয়েছিল মেয়ে, আর ফেরেনি। একই কথা বলছেন মৃত যুবকের কাকাও। দু’জনের মধ্যে কি প্রেমের সম্পর্ক ছিল? মানতে চাননি পরিবারের লোকেরা।

এমনকী, রনিকে চিনতেন না বলেই দাবি করেছেন স্বম্ভিকার বাবা। এদিকে আবার ভাইপোকে খুনের অভিযোগ করেছেন রনির কাকা। প্রাথমিক তদন্তে অনুমান, রাতের অন্ধকারে দ্রুত বাইক চালাতে গিয়ে দুর্ঘটনার কবলে পড়েন ওই যুবক ও যুবকী। ঘটনার তদন্তে নেমেছে পুলিশ।

Related Articles

Back to top button
error: Content is protected !!