এ বছরে পৌষ মেলা না হলে আন্দোলনে নামার হুঁশিয়ারি দিয়ে ট্রাস্টকে চিঠি দিল পৌষমেলা বাঁচাও কমিটি

স্টাফ রিপোর্টার ঃ ২০২০ সালে করোনার জেরে বদ্ধ ছিল শান্তিনিকেতনের ঐতিহ্যবাহী পৌষমেলা। এ বছরেও মেলা নিয়ে ট্রাস্টের তরফে কিছুই জানানো হয়নি । সেই কারণে সোমবার পৌষমেলা ফেরানোর দাবিতে শান্তিনিকেতন ট্রাস্টকে চিঠি দিল বোলপুর ব্যবসায়ী সমিতি ও পৌষমেলা বাঁচাও কমিটি। এদিন সাংবাদিক বৈঠক করে ব্যবসায়ী সমিতি ও পৌষমেলা বাঁচাও কমিটি। তাঁদের বক্তব্য, পৌষ মেলাকে আর বাকি মাত্র ৪০ দিন। কিন্তু ট্রাস্টের পক্ষ থেকে এখনও মেলার বিষয়ে কোনও ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি। এমনকী কোনও বিজ্ঞপ্তিও জারি করা হয়নি।

ফলে মেলা নিয়ে ধন্দে তাঁরা। তাঁদের আরও বক্তব্য, ‘‘ ২০১৯ সালে পৌষমেলার জন্য জমা নেওয়া সিকিউরিটি ডিপোজিটের অর্থও ফেরত দেওয়া হয়নি ব্যবসায়ীদের।” এ বিষয়ে পৌষমেলা বাঁচাও কমিটি এবং ব্যবসায়ী সমিতির পক্ষ থেকে সুব্রত ভক্ত এবং সুনীল সিং জানান, “২০২০সালে কোভিড পরিস্থিতির জন্য বন্ধ ছিল ঐতিহ্যবাহী পৌষমেলা। এবার পরিস্থিতি অনেকটাই স্বাভাবিক, তাই ২৩ ডিসেম্বর থেকে মেলা শুরুর দাবি জানানো হয়েছে। তবে পৌষমেলা না করলে বৃহত্তর আন্দোলনের পথে যাবে পৌষমেলা বাঁচাও কমিটি।”

চিঠিতে বলা হয়েছে, “বর্তমানে রাজ্য এবং কেন্দ্রীয় সরকারের তৎপরতায় করোনা পরিস্থিতি অনেকটা নিয়ন্ত্রণে। তাই অনেক জায়গায় বিভিন্ন গ্রামীণ মেলা এবং বই মেলা হচ্ছে। ফলে আপনাদের কাছে অনুরোধ, অবিলম্বে পৌষমেলার বিজ্ঞপ্তি নিয়ে সদর্থক এবং ফলপ্রসূ পদক্ষেপ নিন। না হলে বোলপুর ব্যবসায়ী সমিতি এবং পৌষমেলা বাঁচাও কমিটি বৃহত্তর আন্দোলনে নামবে।”

Related Articles

Back to top button
error: Content is protected !!