12 Jun 2021, 10:40 AM (GMT)

Coronavirus Stats

29,359,155 Total Cases
367,097 Death Cases
27,911,384 Recovered Cases
দেশ

২০২০- ২১ অর্থবর্ষের প্রথম ন’মাসে প্রত্যক্ষ বিদেশী বিনিয়োগ সংক্রান্ত ইক্যুইটি প্রবাহের পরিমাণ ৪০ শতাংশ বৃদ্ধি

সংবাদ সংস্থা : আর্থিক বিকাশের ক্ষেত্রে প্রত্যক্ষ বিদেশী বিনিয়োগ (এফডিআই) এক গুরুত্বপূর্ণ চালিকাশক্তি এবং ভারতের আর্থিক উন্নয়নের ক্ষেত্রে ঋণ বহির্ভূত অর্থের এক অন্যতম উৎস। সরকার তাই সর্বদাই এক বিনিয়োগ-বান্ধব প্রত্যক্ষ বিদেশী বিনিয়োগ নীতি কার্যকর করার ব্যাপারে সক্রিয় থেকেছে। প্রত্যক্ষ বিদেশী বিনিয়োগ নীতিকে আরও বেশি বিনিয়োগ-বান্ধব করে তুলতে এবং দেশে বিনিয়োগ প্রবাহের ক্ষেত্রে বাধা দূর করতে সরকার একাধিক পদক্ষেপ নিয়েছে। স্বাভাবিকভাবেই গত সাড়ে ছয় বছরে গৃহীত পদক্ষেপগুলির সুফল এখন পাওয়া যাচ্ছে। প্রত্যক্ষ বিদেশী বিনিয়োগ নীতির উদারীকরণ ও সরলীকরণের পথে অগ্রসর হয়ে সরকার বিভিন্ন ক্ষেত্রে প্রত্যক্ষ বিদেশী বিনিয়োগ নীতিতে সংস্কার করেছে।


প্রত্যক্ষ বিদেশী বিনিয়োগ নীতিতে সংস্কার, বিনিয়োগে সুযোগ-সুবিধা এবং সহজে ব্যবসা-বাণিজ্যের অনুকূল পরিবেশ গড়ে তোলার মতো একাধিক প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণের ফলে দেশে প্রত্যক্ষ বিদেশী বিনিয়োগ প্রবাহের পরিমাণ বেড়েছে। এর ফলস্বরূপ ভারত, প্রত্যক্ষ বিদেশী বিনিয়োগের ক্ষেত্রে লগ্নিকারীদের কাছে এক পছন্দের গন্তব্য হয়ে উঠেছে। নিম্নলিখিত পরিসংখ্যান থেকে এর সুস্পষ্ট প্রমাণ মেলে । ২০২০’র এপ্রিল-ডিসেম্বর পর্যন্ত সময়ে ভারতে প্রত্যক্ষ বিদেশী বিনিয়োগের মোট পরিমাণ ছিল ৬৭.৫৪ বিলিয়ন মার্কিন ডলার। বিদেশী বিনিয়োগের এই পরিমাণ যে কোনও একটি অর্থবর্ষের প্রথম ন’মাসে সর্বাধিক।

এমনকি, ২০১৯-২০’র প্রথম ন’মাসে বিনিয়োগের তুলনায় ২২ শতাংশ বা ৫৫.১৪ বিলিয়ন বেশি। ২০২০-২১ অর্থবর্ষের প্রথম ন’মাসে প্রত্যক্ষ বিদেশী বিনিয়োগ সংক্রান্ত ইক্যুইটি প্রবাহের পরিমাণ ৪০ শতাংশ বেড়ে ৫১.৪৭ বিলিয়ন মার্কিন ডলার হয়েছে, যা পূর্ববর্তী বছরে আলোচ্য সময়ে ছিল ৩৬.৭৭ বিলিয়ন মার্কিন ডলার। ২০২০-২১ অর্থবর্ষের তৃতীয় ত্রৈমাসিকে প্রত্যক্ষ বিদেশী বিনিয়োগ সংক্রান্ত ইক্যুইটি প্রবাহের পরিমাণ ২০১৯-২০ অর্থবর্ষের তৃতীয় ত্রৈমাসিকের ১৯.০৯ বিলিয়ন মার্কিন ডলার থেকে ৩৭ শতাংশ বেড়ে ২৬.১৬ বিলিয়ন মার্কিন ডলার হয়েছে। একইভাবে, গত ডিসেম্বর মাসে প্রত্যক্ষ বিদেশি বিনিয়োগ সংক্রান্ত ইক্যুইটি প্রবাহের পরিমাণ ২৪ শতাংশ বেড়ে হয়েছে ৯.২২ বিলিয়ন মার্কিন ডলার,

যা ২০১৯ সালের আলোচ্য মাসে ছিল ৭.৪৬ বিলিয়ন মার্কিন ডলার।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button