25 Sep 2021, 12:27 PM (GMT)

Coronavirus Stats

33,624,419 Total Cases
446,690 Death Cases
32,876,319 Recovered Cases
খবররাজ্য

স্বাস্থ্যসাথী কার্ড না থাকলেও শর্তসাপেক্ষে ‘লক্ষ্মীর ভাণ্ডার’-এর ফর্ম তুলতে পারবেন, জানালেন মমতা

স্টাফ রিপোর্টারঃ ‘লক্ষ্মীর ভাণ্ডার’-এ কি পরিবারের সকল মহিলা টাকা পাবেন? নাকি যাঁর নামে স্বাস্থ্যসাথী কার্ড আছে, তিনিই শুধুমাত্র ফর্ম তুলতে পারবেন? তা নিয়ে একাংশের মধ্যে ধন্দ তৈরি হয়েছিল। সেই ধোঁয়াশা কাটাতে এগিয়ে এলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।বুধবার নবান্নে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘যাঁরা যোগ্য, তাঁরা সকলেই (‘লক্ষ্মীর ভাণ্ডার’-এর ফর্ম) পাবেন। ২৫-৬৫ বছরের মধ্যে পাবেন। যাঁরা সরকারি চাকরি করেন না বা পেনশন পান না।

সরকারি চাকরি করেন বা পেনশন পান যাঁরা, তাঁরা ছাড়া সাধারণ মা-বোনেরা পাবেন।’ সঙ্গে যোগ করেন, ‘যাঁরা স্বাস্থ্যসাথী কার্ড করেছেন, তাঁরা স্বাস্থ্যসাথী কার্ড দেখালেই ফর্ম পেয়ে যাবেন। স্বাস্থ্যসাথী কার্ডে আমরা একটা নিয়ম করেছি। বাড়ির সবথেকে বয়স্ক মহিলার নামে স্বাস্থ্যসাথী কার্ড আছে। ধরুন, সেই বাড়িতে তিনজন মহিলা আছেন। তাঁদের বয়স ২৫ থেকে ৬৫-এর মধ্যে। তাঁদের নামে স্বাস্থ্যসাথী কার্ড নেই। তাঁদের অভিভাবকের নামে স্বাস্থ্যসাথী কার্ড থাকলে ওই বাড়ির বউ-মেয়েরা পাবেন।’ মুখ্যমন্ত্রীর আশ্বাস, এক মাস চলবে ফর্ম বিলির কাজ।

যাঁরা যোগ্য, তাঁরা সবাই ‘লক্ষ্মীর ভাণ্ডার’-এর সুবিধা পাবেন। প্রয়োজনে নির্ধারিত সময় পেরিয়ে গেলেও তিন-চারদিন বাড়তি শিবির চালানো হবে। যাতে সবাই ‘লক্ষ্মীর ভাণ্ডার’-এর সুবিধা পান। যে প্রকল্পের আওতায় রাজ্যের জেনারেল শ্রেণিভুক্ত পরিবারের মহিলাদের মাসিক ৫০০ টাকা এবং তফসিলি জাতি ও উপজাতিভুক্ত পরিবারের মহিলারা ১,০০০ টাকা পাবেন। তাই সকলকে করোনাভাইরাস বিধি মেনে ‘লক্ষ্মীর ভাণ্ডার’-র ফর্ম তোলার আর্জি জানিয়েছেন মমতা।

Related Articles

Back to top button