15 Jun 2021, 4:42 AM (GMT)

Coronavirus Stats

29,617,058 Total Cases
377,061 Death Cases
28,345,261 Recovered Cases
দক্ষিণ ২4 পরগণা

সাগরে ই-এপিকের সূচনা

নিজস্ব সংবাদদাতা, দক্ষিণ ২৪ পরগনা : সাগর ব্লকে ই-এপিকের শুভ সূচনা করলেন ব্লক সমষ্টি উন্নয়ন আধিকারিক সুদীপ্ত মণ্ডল। এবার আধারের মতো ভোটার কার্ডও হতে চলেছে ডিজিটাল। গত ২৫ জানুয়ারি জাতীয় ভোটার দিবস উপলক্ষে এই নতুন ই-ভোটার কার্ডের সূচনা করেছে জাতীয় নির্বাচন কমিশন। আধার কার্ডের মতোই ইন্টারনেট থেকে ডাউনলোড করে নেওয়া যাবে এই নয়া ভোটার কার্ড।
ই-এপিকের জন্য নির্বাচন কমিশন নির্দিষ্ট পোর্টাল চালু করেছে। তা ডাউনলোড করার পর নিজের এপিক সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য জানা যাবে। তবে যাঁদের স্মার্টফোন নেই, তাঁরা ছাপানো কার্ড হাতে পেয়ে যাবেন।


যাঁদের মোবাইল নম্বর রেজিস্টার্ড করা রয়েছে, তাঁরা সকলে ই-এপিক ডাউনলোড করতে পারবেন৷ জেনে নিন কীভাবে আপনি এই ডিজিটাল ভোটার কার্ডের সঙ্গে যুক্ত হবেন।
EPIC বিষয়টি কি?
এটি সিকিওর পোর্টেবল ফর্ম্যাট। এটিকে আপনি নিজের মোবাইল বা কম্পিউটারে ডাউনলোড করে নিতে পারবেন। পিডিএফ ফাইল হিসেবে যে কোনও জায়গায় এটিকে ব্যবহার করতে পারবেন।
কীভাবে ডাউনলোড করবেন?


আপনি মোবাইলে ভোটার হেল্পলাইন মোবাইল অ্যাপ অথবা ভোটার পোর্টাল থেকে EPIC ফর্ম ডাউনলোড করুন। NVSP থেকেও ডাউনলোড করতে পারবেন। Voter Portal: http://voterportal.eci.gov.in/ এই লিঙ্কে ক্লিক করুন। অথবা NVSP: https://nvsp.in/ এই লিঙ্কে। মোবাইলে অ্যাপ ডাউনলোড করতে
Android https://play.google.com/store/apps/details?id=com.eci.citizen ,
iOS https://apps.apple.com/in/app/voter-helpline/id1456535004 ক্লিক করুন।
কারা আবেদন করতে পারবেন?


সব ভোটারই আবেদন করতে পারবেন। যাঁদের মোবাইল নম্বর রেজিস্টার্ড করা রয়েছে, তাঁরা সকলে ই-এপিক ডাউনলোড করতে পারবেন৷ যদি আপনার এপিক নম্বর না থাকে এবং ফর্মের রেফারেন্স নম্বর থাকে, তাহলে কি পারবেন ডাউনলোড করতে?
–হ্যাঁ, পারবেন। আপনি আপনার নাম সার্চ করুন http://voterportal.eci.gov.in/ অথবা http://electoralsearch.in/ এখানে। এর পর EPIC নম্বর লিখে নিয়ে ডাউনলোড করুন।
কীভাবে ডাউনলোড করবেন?


–প্রথমে http://voterportal.eci.gov.in/ অথবা https://nvsp.in/ মোবাইলে ডাউনলোড করে নিন। অথবা ভোটার হেল্পলাইন মোবাইল অ্যাপে নীচের স্টেপগুলো ফলো করুন। ১. রেজিস্ট্রার বা লগ-ইন করুন। ২. মেনুতে গিয়ে নেভিগেশনে ক্লিক করে ডাউনলোড করুন e-EPIC ৩. অথবা ফর্মের রেফারেন্স নম্বর ব্যবহার করুন। ৪. এবার আপনার ভেরিফাইড মোবাইল নম্বরে একটি OTP আসবে। ৫. e-EPIC ক্লিক করে ডাউনলোড করুন। ৬. যদি ফোন নম্বর রেজিস্টার না করা থাকে, সেক্ষেত্রে কেওয়াইসি পুরো করতে হবে। ৭. মোবাইল নম্বর আপডেট করুন, ফেস রেকগনাইজেশন দিন। কেওয়াইসি করুন। ৮. সর্বশেষে

ডাউনলোড করুন e-EPIC৷

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button