13 Jun 2021, 2:07 AM (GMT)

Coronavirus Stats

29,439,989 Total Cases
370,407 Death Cases
28,043,446 Recovered Cases
কাকদ্বীপখবর

ভোটারদের কাছে দেওয়া প্রতিশ্রতি সবই পালন করেছি, তা নিয়ে প্রচারে নামবো : মন্টুরাম পাখিরা

বিশ্ব সমাচারের প্রতিবেদন, কাকদ্বীপ : তিনি ভোটারদের কাছে যা যা প্রতিশ্রতি দিয়েছিলেন, তাঁর ভোট কেন্দ্রে তা পূরণ করেছেন। তার নিরিখেই তিনি এবার ভোট চাইবেন কাকদ্বীপের মানুষের কাছে।’ বুধবার দুপুরে কাকদ্বীপ মহকুমা শাসকের অফিসে মনোনয়নপত্র জমা দিয়ে বেরোবার সময় এই মন্তব্য করেন সুন্দরবন বিষয়ক দপ্তরের মন্ত্রী মন্টুরাম পাখিরা।

তিনি বলেন, কাকদ্বীপের রাজনৈতিক জমি আমার জন্মভ‚মি। সেখানেই বড় হওয়া, পড়াশুনা থেকে টানা পর পর ৬ বার বিধানসভা নির্বাচনে দাঁড়ানো। স্বাভাবিকভাবে এখানকার মানুষের সব সময়ের সুখ ও দুঃখের সঙ্গী। বিগত দিনে ভোট চাইতে গিয়ে যা যা প্রতিশ্রতি দেওয়া হয়েছিল, তার একটিও এখন আর বাকি নেই। সব করা হয়েছে। এই কেন্দ্রে কোথাও একটা মাটির রাস্তা কেউ দেখাতে পারবে না। তাঁর সেই কাজ নিয়ে ভোটারদের কাছে যাবেন। তিনি জানেন, এবারও মানুষ তাঁকে আশীর্বাদ করবেন। এবার তাঁর কেন্দ্রে প্রতিপক্ষ কে? বিজেপি নাকি সিপিএম-কংগ্রেস জোট।

তৃণমূল প্রার্থী মন্টুরাখ পাখিরা বলেন, আসলে রাজনৈতিক ভাষায় প্রতিপক্ষ বলতে যা বোঝায়, বিরোধী দলের সেই মুখ দেখা যাচ্ছে না। এই কথা বলার ফাঁকে এক সাংবাদিক মন্টুবাবুকে প্রশ্ন করেন, বিজেপি প্রার্থী দীপঙ্কর জানা অভিযোগ করেছেন, এখানে তৃণমূলের তোলাবাজি ও দুর্নীতিতে ভরে গেছে। এবারের ভোটে তা ইস্যু করবে বিজেপি। তৃণমূল প্রার্থী মন্টুরাম পাখিরা হেসে বলেন, আমাদের এখানে এসব করতে দেওয়া হয় না। ব্যক্তিগতভাবে আমিও এর বিরুদ্ধে সব সময় পাহারাদার হিসেবে কাকদ্বীপে নজরদারি করি। কারণ, আমার নিজের জীবনযাপনও সেভাবে বেধে রাখা হয়েছে। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যাপাধ্যায়ের হাত ধরে রাজনীতিতে এসেছি। এখনো তাঁর ভাবনাকে নিয়েই একজন কর্মী হিসেবে কাজ করছি।

ফলে বিজেপির প্রার্থী যা বলছেন, তা সত্য নয়। আমি কারও নিন্দা ও সমালোচনা করতে চাইছি না। তবুও আলোচনা প্রসঙ্গে বিজেপি প্রার্থীর কথা ধরেই জানাতে চাই, এখন উনি যা বলছেন। তা ওঁনার মুখে শোভা পায় না। কারণ, উনি কখনও এই মাটিতে সেভাবে রাজনীতি করেননি। বরাবরই ব্যবসার কাজে হলদিয়াতে থাকতেন। তাছাড়া, দীপঙ্কর জানার স্মরণে রাখা উচিত যে এই কাকদ্বীপে ওঁনার বাবা গঙ্গাধর জানা একসময় সিপিএমের দাপুটে নেতা ছিলেন। শুধু তাই নয় ঋষি বঙ্কিম গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান ছিলেন দীর্ঘদিন। ফলে দুর্নীতির কথা ওঁনার মুখে মানায় না। দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলায় দ্বিতীয় পর্যায়ে কাকদ্বীপ, সাগর, পাথরপ্রতিমা ও গোসাবা এই ৪টি জায়গাতে ভোট হচেছ ১ এপ্রিল।

ফলে মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার কাজ শুরু হয়ে গেছে। এদিন সকাল সোয়া ১০ টার সময় তৃণমূল কংগ্রসের বিশাল মিছিল বের হয়। কাকদ্বীপ মহকুমা শাসকের অফিসে প্রথম মনোনয়ন জমা দেন মন্টুবাবু। এরপর সেখানে মিছিল করে চলে আসেন সাগরের বিধায়ক বঙ্কিম হাজরা ও পাথরপ্রতিমার বিধায়ক সমীর জানা। তাঁরও একে একে মনোনয়ন পত্র জমা দেন। মহকুমা অফিসের করিডরে ৩ জন তৃণমূল প্রার্থী একসঙ্গে ছবি তোলেন। ৩ জনই বলেন, আমাদের জয় সময়ের অপেক্ষা। ফল বেরোবার পর এই তিন মূর্তিকে এখানে ফের দেখা যাবে। অন্যদিকে এদিন সাগর থেকে সিপিএম-কং জোট সমর্থিত সিপিএম প্রার্থী ডঃ মুকলেষু রহমান মনোনয়ন পত্র জমা দেন

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button