23 Sep 2021, 2:47 AM (GMT)

Coronavirus Stats

33,586,892 Total Cases
446,279 Death Cases
32,832,371 Recovered Cases
খবরদক্ষিণ ২4 পরগণা

বারুইপুর, সোনারপুর, ক্যানিং, জয়নগর সহ বিভিন্ন জায়গা ভারী বৃষ্টির জলে থই থই

বিশ্ব সমাচার, বারুইপুর: নিম্নচাপের জেরে ভারী বৃষ্টির জেরে দক্ষিণ ২৪ পরগনার বিভিন্ন জায়গা জলমগ্ন হয়েছে। তারমধ্যে বারুইপুর ও সোনারপুর-রাজপুর পুরসভার বেশ কয়েকটি ওয়ার্ড রয়েছে। জলমগ্ন হয়েছে ক্যানিং, ভাঙড়, জয়নগর, বারুইপুর পূর্ব বিধানসভার কিছু এলাকা।

বারুইপুর পুরসভার ১১ নম্বর ওয়ার্ডের গোলপুকুর আবার জলমগ্ন হয়েছে। রাস্তা থেকে শুরু করে বাসিন্দাদের বাড়িতে, উঠোনে, রান্নাঘরে জল ঢুকে গিয়েছে। কোমরসমান জল দাঁড়িয়ে আছে রাস্তায়। ১০ নম্বর ওয়ার্ডের কিছু এলাকা, ৪ নম্বর ওয়ার্ড ও ১৪ নম্বর ওয়ার্ডের পঞ্চাননতলা থেকে অক্ষয় সংঘ পর্যন্ত রাস্তা ফি বছরের মতো এবারও বর্ষায় জলমগ্ন হয়েছে। ১৩ নম্বর ওয়ার্ডের মাস্টার পাড়া, দাস পাড়া রোড, ৩ নম্বর ওয়ার্ডের কিছু এলাকা, ৪ নম্বর ওয়ার্ডের দত্তপাড়া, ২ নম্বর ওয়ার্ডের কিছু এলাকা জলমগ্ন হয়েছে। বারুইপুর মহকুমা হাসপাতাল ফি বছরের মতো এবারও জলমগ্ন হয়েছে। পরিজনরা হাসপাতালে রোগীকে ঠিকমতো নিয়ে যেতে পারছেন না। জলের ওপর দিয়েই হেঁটে যেতে হচ্ছে।

অসুুুবিধা হচ্ছে অ্যাম্বুলেন্স চলাচলেও। ভীষণ অসুবিধায় পড়েছে রোগীর পরিবার। জলে ঘুরছে সাপ, ব্যাঙ। সেই জল মাড়িয়েই যাতায়াত করতে হচ্ছে বাসিন্দাদের। পুরসভার প্রশাসক শক্তি রায়চৌধুরী বলেন, উত্তরভাগে পাম্প চালিয়ে জল বের করার ব্যবস্থা করা হচ্ছে।পাশাপাশি সোনারপুর-রাজপুর পুরসভার নরেন্দ্রপুর গ্রিন পার্ক, বিবেকানন্দ পল্লি, মিশন পল্লি, কামালগাছি, মানিকপুর, গড়িয়ার বিস্তীর্ণ এলাকা জলমগ্ন হয়ে যাওয়ায় বাসিন্দাদের নাজেহাল হতে হচ্ছে। বারুইপুর পূর্ব বিধানসভার চম্পাহাটি, নবগ্রাম, ধোসা, বেলেগাছি এলাকায় জল জমে বাসিন্দারা ঘরবন্দি হয়ে পড়েছেন। বিধায়ক বিভাস সরদার এই সব জায়গায় বাসিন্দাদের পাশে দাঁড়ান।

ক্যানিং মহকুমা হাসপাতাল, কুলতলির জয়নগর গ্রামীণ হাসপাতাল জলমগ্ন হয়েছে। কুলতলির শানকিজাহান এলাকায় বাজার জল জমেছে। ক্যানিংয়ের বেশ কয়েকটি পঞ্চায়েত এলাকা জলমগ্ন হয়েছে। বিধায়ক পরেশ দাস নিজে এলাকায় গিয়ে নিকাশির কাজে সাহায্য করেন। রায়দিঘির কাছারি মোড় সহ বিভিন্ন নদী সংলগ্ন এলাকা জলমগ্ন হয়েছে। জয়নগরের কিছু এলাকা জলমগ্ন হয়ে যাওয়ায় পুর প্রশাসক সুজিত সরখেল নিকাশি ব্যবস্থার তদারকি করতে সকাল থেকে মাঠে নেমে পড়েন। ভাঙড়ের কিছু পঞ্চায়েত এলাকায় বাসিন্দাদের ঘরে জল ঢুকে গিয়েছে। তবে আবহাওয়া দপ্তর থেকে জানানো হয়েছে, আরও কয়েকদিন অতিভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা আছে।

Related Articles

Back to top button