16 Jun 2021, 9:58 AM (GMT)

Coronavirus Stats

29,633,105 Total Cases
379,601 Death Cases
28,388,100 Recovered Cases
খবররাজ্য

পটাশপুরে দেব, জঙ্গলমহলে মিঠুন, রিয়্যালিটি শো থেকে প্রচারের মঞ্চে টক্কর মহাগুরু ও পাগলু’র

স্টাফ রিপোর্টার : রিয়্যালিটি শো থেকে এবার সরাসরি বঙ্গের ভোটপ্রচারের মঞ্চে। যুযুধান দুই প্রতিপক্ষ শিবিরের তারকা প্রচারকদের। একদিকে ‘দিদির একনিষ্ঠ সৈনিক’ দেব এবং অন্যদিকে ‘মোদীর স্টার সেনাপতি’ মিঠুন চক্রবর্তী । বৃহস্পতিবার বাংলার ভোটপ্রচারের মঞ্চে ‘মহাগুরু’ বনাম ‘পাগলু’র জোর টক্কর! অসমবয়সী দুই সুপারস্টার তথা রাজনীতিককে ঘিরে উন্মাদনার অন্ত নেই অনুরাগীদের।

তাই রাজনৈতিক মতাদর্শে অমিল থাকলেও প্রিয় তারকাকে দেখার সুযোগ কেউ মিস করতে চান না। দেব প্রচার করছেন মেদিনীপুরের পটাশপুরে, আর জঙ্গলমহলে তুফান তুলেছেন মহাগুরু। সবুজ-গেরুয়া দুই শিবিরের তারকা-প্রচারে চোখ ধাঁধিয়ে যাওয়ার জোগাড়। একইদিনে দুই সুপাস্টারের সিনেমা রিলিজে ঠিক যেমন উত্তেজনা হয়, এখানেও দেখা গেল সেই একই প্রতিচ্ছ্ববি।পদ্মপ্রার্থী শুভেন্দু অধিকারী গড়ে আরেক অধিকারী গিয়েছেন প্রচার করতে। একদা একদলের সতীর্থ হলেও এখন তাঁদের রাজনৈতিক মতাদর্শ ভিন্ন। তাই মেদিনীপুরে গিয়ে বাংলায় জোড়াফুল ফোটানোর হ্যাট্রিকের আর্জি জানিয়ে এলেন তৃণমূলের তারকা সাংসদ দেব ওরফে দীপক অধিকারী।

পূর্ব মেদিনীপুরের পটাশপুরের টিকরাপাড়া হাইস্কুলের মাঠে প্রচার করতে গিয়েছিলেন দেব। এদিন দুপুরে সেখানে একটি রোড শোতে অংশ নেন তিনি। আর সেই তারকাকে দেখতে প্রায় উন্মত্ত জনতা। বাড়ির চাল-ছাদে লোকারণ্য। অন্যদিকে, বৃহস্পতিবার সকালেই বাঁকুড়া পৌঁছেছেন মিঠুন চক্রবর্তী। জঙ্গলমহল উত্তাল সবুজ-গেরুয়া দুই প্রতিপক্ষ শিবিরের চোখ রাঙানিতে। একুশের বিধানসভা নির্বাচনে গুরুত্বপূর্ণ কেন্দ্রও বটে! কিন্তু তাতে কী? বাঁকুড়ায় ‘বাঙালিবাবু’র চপার নামতেই উপচে পড়ল জনসুনামির ঢল! পরিস্থিতি এমন পর্যায়ে পৌঁছয় যে, মিনিট ১৫ কপ্টারেই বসে থাকতে হল ‘মহাগুরু’কে। চারিদিকে উচ্ছ্বাস আর আবেগ বঙ্গসন্তানকে ঘিরে।

২০১৬ সালে তৃণমূল থেকে ইস্তফা দিয়ে রাজনৈতিক সন্ন্যাসে যাওয়ার পর একুশেবাংলার মসনদ দখলের লড়াইয়ে তিনি ভারতীয় জনতা পার্টির শরীক হয়েছেন। ভোটপুজো বোধনের তাই দিন দুয়েক আগেই ময়দানে নেমে পড়েছেন গেরুয়া শিবিরের হয়ে। প্রচারের মাঝেই রাজ্যের শাসকদলকে পাল্টা জবাব ছুঁড়ে বলেছেন, “দরিদ্রদের হয়ে লড়ার জন্যই পদ্মবনে প্রবেশ।” জয়ের বিষয়েও নিশ্চিত মিঠুনের মন্তব্য, “এবারে ২০০র বেশি আসনে জয় পাবে বিজেপি। মানুষকে একটাই কথা বলতে এসেছি, নিজের অধিকার ছিনিয়ে নিতে হবে। এটা তাঁদের গণতান্ত্রিক অধিকার।”

Related Articles

Back to top button