19 Jun 2021, 6:38 AM (GMT)

Coronavirus Stats

29,853,870 Total Cases
385,815 Death Cases
28,725,030 Recovered Cases
খবরদক্ষিণ ২4 পরগণা

দুই তারকা প্রার্থীর প্রচারে জমজমাট সোনারপুর দক্ষিণ বিধানসভা কেন্দ্র

প্রদীপ কুমার সিংহ, সোনারপুর : মঙ্গলবার সাত সকালে সাইকেল চালিয়ে প্রচারে নামলেন সোনারপুর দক্ষিণের তৃণমূল কংগ্রেসের প্রার্থী লাভলি ওরফে অরুন্ধতী মৈত্র। মঙ্গলবার সোনারপুরের কালিকাপুর ১ নম্বর পঞ্চায়েত এলাকা ঘুরে প্রচার সারেন টেলিতারকা প্রার্থী।

কখনও কর্মীদের সঙ্গে পায়ে হেঁটে আবার কখনও সাইকেল চালিয়ে। এদিন প্রার্থীর মুখে শোনা গেল খেলা হবে শ্লোগান। সাইকেলে যেতে যেতে মাঝে মাঝে দাঁড় করিয়ে রাস্তার পাশে দাঁড়িয়ে থাকা মানুষদের সঙ্গে পরিচয় করলেন। তাঁদের ভোট দেওয়ার আহ্বান জানালেন। কিছু জায়গায় কর্মীদের আব্দারে ক্রিকেটও খেললেন প্রার্থী। টেলিতারকা প্রার্থীকে দেখতে এদিন ভিড় উপচে পড়ে এলাকায়। অনেকেই তারকাকে কাছে পেয়ে সেলফিও তোলেন। এদিন হুডখোলা টোটোতে করে চম্পাহাটি তেমাথা থেকে বাদামতলা পর্যন্ত রোড শো হয়। তেমাথায় বড় ঠাকুরের মন্দিরে পুজাও দেন তিনি। এদিন লাভলি মৈত্র বলেন, ভোট যুদ্ধে খেলার কোন সৈনিক খুঁজে পাচ্ছেন না তিনি।

এমনিতেই তাঁরা নড়বড়ে হয়ে গিয়েছে।” তিনি আরও বলেন, “সাইকেল চালিয়ে স্কুলে গিয়েছি ও টিউশানে গিয়েছি। ব্যালান্স করতে কোন অসুবিধা নেই।” সাইকেল চালাতে ভালোবাসি। এই টেলিতারকা প্রার্থীর বিপক্ষে বিজেপির প্রার্থী অভিনেত্রী অঞ্জনা বসু। দুই তারকা প্রার্থীর প্রচারে এদিন সকাল থেকেই জমজমাট রইলো সোনারপুর দক্ষিণ বিধানসভা কেন্দ্র।। এদিন সকালে বিজেপি প্রার্থী অঞ্জনা বসু সোনারপুর স্টেশন সংলগ্ন বাজারে প্রচার সারেন কর্মীদের নিয়ে। মাছ বাজারে গিয়ে মহিলাদের সমস্যা শোনেন তিনি। দোকানে দোকানে গিয়ে কথা বলেন মানুষদের সঙ্গে। এদিন প্রার্থীকে নিয়ে কর্মীদের মধ্যে উৎসাহ ভালোই ছিল। অনেকে সেলফিও তোলেন অভিনেত্রীর সঙ্গে। রাজপুর বাজারেও প্রচার করেন তিনি।

এদিন অনেকেই প্রার্থীকে প্রশ্ন করেন, সোনারপুরে পাওয়া যাবে তো? তার উত্তরে এদিন বিজেপি প্রার্থী অঞ্জনা বসু বলেন, “সোনারপুরে বাড়ি নিয়ে নিয়েছি, সেখানে থাকতে শুরু করেছি, সমস্যা হবে না। লাভলি স্নেহের ছোট বোন। বড় দিদির মত কোন বিপদে পড়লে পাশে আছি। কিন্তু বিজেপির প্রার্থী নিয়ে বিজেপি কর্মীদের মধ্যে ক্ষোভ রয়েছে। বিকালে হরিনাভি মেইন রোডের উপর বিজেপি কর্মীরা পথ অবরোধ করেন । প্রায় এক ঘন্টার কাছাকাছি।পরে সোনারপুর থানার পুলিশ এসে পরিস্থিতি সামাল দেয়।

Related Articles

Back to top button