21 Sep 2021, 3:03 AM (GMT)

Coronavirus Stats

33,502,744 Total Cases
445,416 Death Cases
32,742,059 Recovered Cases
কাকদ্বীপখবরদক্ষিণ ২4 পরগণা

কৃষি দূষণ নিয়ন্ত্রণে উদ্যোগী কাকদ্বীপের প্রতাপাদিত্যনগর গ্রাম পঞ্চায়েত

বিশ্ব সমাচার, কাকদ্বীপ: পরিবেশ দূষণের ফলে বিশ্ব উষ্ণায়নের জেরে প্রতিনিয়ত ঘটে চলা নানান বিপর্যয়ে যখন সারা বিশ্ব বিপন্ন, ঠিক সেই সময়ে ঘুরে দাঁড়ানোর উপায় বের করার লক্ষ্যে অভিনব উদ্যোগ নিল দক্ষিণ ২৪ পরগনার কাকদ্বীপের প্রতাপাদিত্যনগর গ্রাম পঞ্চায়েত। ইতিমধ্যেই এই পঞ্চায়েত বিভিন্ন ধরনের উন্নয়ন মূলক কাজকর্মের নিরিখে রাজ্যের গণ্ডি ছাড়িয়ে দেশের পঞ্চায়েত ব্যবস্থাপনার মানচিত্রে উজ্জ্বল জায়গা করে নিয়েছে।

গত বছর এই পঞ্চায়েত পরিকল্পনা রচনা ও রূপায়ণ বিভাগে জাতীয় স্তরে পঞ্চায়েত স্বশক্তিকরণ পুরস্কার পেয়েছিল। আবার ভারত সরকারের পঞ্চায়েত ও গ্রামোন্নয়ন মন্ত্রক থেকে প্রকাশিত হওয়া ‘গ্রামোদয় সঙ্কল্প’ জার্নালের এবারের সংখ্যায় এই গ্রাম পঞ্চায়েতকে নিয়ে দু’টি প্রতিবেদন ছাপা হয়েছে। তার মধ্যে একটি গ্রাম পঞ্চায়েত থেকে উদ্যোগ নেওয়া নানা ধরনের জীবিকা উন্নয়নমূলক প্রকল্প নিয়ে এবং আর একটি নিজস্ব তহবিল সংগ্রহ ও তার সুষম ব্যবহারের উপর। অন্যদিকে, গ্রাম পঞ্চায়েতের বর্জ্য ব্যবস্থাপনা প্রকল্পও আজ দেশের মধ্যে অন্যতম সফল প্রকল্প হিসেবে সুপরিচিত।এবার জৈব চাষের মাধ্যমে দূষণ কমানোর লক্ষ্যে স্বনির্ভর দলের মহিলাদের নিয়ে শনিবার একটি কৃষি কর্মশালার আয়োজন করে গ্রাম পঞ্চায়েত। উপস্থিত ছিলেন নরেন্দ্রপুর রামকৃষ্ণ মিশনের জন শিক্ষণ সংস্থানের আধিকারিক সহ অন্যান্যরা।

এই কর্মশালার উদ্বোধন করে গ্রাম পঞ্চায়েতের উপপ্রধান দেবব্রত মাইতি বলেন, রাসায়নিক সারের অতিরিক্ত ব্যবহারের ফলে কৃষিজমি বন্ধ্যা হয়ে যাচ্ছে। ফলে একদিকে চাষের ফলন যেমন কমছে, সেইসঙ্গে মাটি, জল, পরিবেশও দূষণে ভারাক্রান্ত হয়ে পড়ছে। এর থেকে পরিত্রাণের একমাত্র উপায় রাসায়নিক কীটনাশক-সারের উপর নির্ভরতা কমিয়ে সব ধরনের চাষে জৈব সার বিশেষ করে ভার্মিকম্পোস্ট বা কেঁচো সারের ব্যবহার বাড়ানো। তিনি আরও বলেন, ইতিমধ্যেই গ্রাম পঞ্চায়েতের বর্জ্য ব্যবস্থাপনা প্রকল্পে উৎপাদিত জৈব সার ব্যবহারে এই এলাকার বহু চাষি অভ্যস্ত হয়ে পড়েছেন, তারা এই সার ব্যবহারের সুফল হাতেনাতে পাচ্ছেন। এই জৈব সার ব্যবহারে একদিকে যেমন চাষের খরচ কম হওয়ায় কৃষকের মুনাফা বাড়ছে, অন্যদিকে পরিবেশ বাঁচছে, মানুষের স্বাস্থ্যও সুরক্ষিত হচ্ছে।

তিনি বলেন, গ্রামীণ এলাকার প্রতিটি বাড়িতে ভার্মিকম্পোস্ট সার তৈরির প্রকল্প পঞ্চায়েতের তহবিল থেকে গড়ে তোলা হবে। এদিনের এই কৃষি কর্মশালায় স্বনির্ভর দলের ৪০ জন মহিলা অংশগ্রহণ করেন। গ্রাম পঞ্চায়েতের বর্জ্য ব্যবস্থাপনা প্রকল্পের প্রশিক্ষিত কর্মীরা বাড়িতে কীভাবে এই ভার্মিকম্পোস্ট সার তৈরি করা যায়, তা কর্মশালায় উপস্থিত প্রতিনিধিদের হাতেকলমে করেও দেখান। দূষণমুক্ত পরিবেশ গড়ে তোলার লক্ষ্যে প্রতাপাদিত্যনগর গ্রাম পঞ্চায়েতের এই উদ্যোগ নিঃসন্দেহে আগামীতে অন্যদেরও পথ দেখাবে।

Related Articles

Back to top button