24 Jul 2021, 5:06 AM (GMT)

Coronavirus Stats

31,332,159 Total Cases
420,043 Death Cases
30,503,166 Recovered Cases
খবরদক্ষিণ ২4 পরগণা

আজ ইলিশ ধরতে সমুদ্রে ট্রলার যাত্রা শুরু করোনা বিধি মেনেই

সমরেশ মণ্ডল, দক্ষিণ ২৪ পরগনা: আজ, মঙ্গলবার সমুদ্রে ইলিশ ধরতে রওনা দিচ্ছে কয়েক হাজার ট্রলার। সোমবার সর্বত্রই মৎস্যজীবীদের শেষপর্যায়ের প্রস্তুতি নজরে এল। পাশাপাশি কড়া নজর রয়েছে করোনা বিধি মানার ক্ষেত্রেও।
প্রতি বছর ১৫ এপ্রিল থেকে ১৪ জুন পর্যন্ত নদী এবং সমুদ্রে মাছ ধরায় নিষেধাজ্ঞা জারি থাকে৷

এতদিন নিষেধাজ্ঞা শেষ হওয়ার অপেক্ষায় ছিলেন মৎস্যজীবীরা। চালাচ্ছিলেন সাগরযাত্রার প্রস্তুতি। সোমবার মধ্যরাতে শেষ হবে ওই নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ। এবার ডিঙা ভাসানোর প্রস্তুতি চলছে জোর কদমে। লকডাউন এবং যশের ধাক্কা কাটিয়ে এবার জলের রুপোলি শস্যের খোঁজে বঙ্গোপসাগরে পাড়ি দেওয়ার পালা। সঙ্গে একবুক আশা।

এবার মরশুমের শুরুতেই হালকা বৃষ্টি হওয়ায় প্রচুর ইলিশ উঠতে পারে বলে আশা মৎস্যজীবী সংগঠনগুলির। রবিবার দিনভর সুন্দরবনের ঘাটগুলিতে পুরোদমে প্রস্তুতি নজরে এসেছে। ভিন্‌রাজ্য থেকে ফেরা পরিযায়ী শ্রমিকদের অনেকেই এবার গভীর সমুদ্রে মাছ ধরতে যেতে রাজি।

ফলে করোনা সংক্রমণের কথা মাথায় রেখে এবার নামখানা, ফ্রেজারগঞ্জ, কাকদ্বীপ, এবং সাগরদ্বীপের মৎস্যজীবীদের উপর প্রশাসনের নজরদারি রয়েছে। মৎস্য দফতর সূত্রে জানা গিয়েছে, মৎস্যজীবীদের স্বাস্থ্যশিবির এবং করোনা পরীক্ষার ব্যবস্থা হয়েছিল আগেই। নেগেটিভ রিপোর্ট হাতে পাওয়ার পর তবে ট্রলারে ওঠার অনুমতি মিলছে সকলের।

পাশাপাশি মৎস্যজীবী সংগঠনগুলির তরফে মাস্ক পরার ক্ষেত্রেও জোর দেওয়া হয়েছে। কোনও ট্রলারে ১৫ জনের বেশি মৎস্যজীবী থাকবেন না—– নিষেধাজ্ঞা মৎস্য দফতরের। জেলায় ছোট বড় মিলিয়ে প্রায় ১৩ হাজার ট্রলার ও ইঞ্জিনচালিত বড় নৌকা সমুদ্রে মাছ ধরতে যায়।

দুর্ঘটনা এড়াতে গভীর সমুদ্রে যাওয়া প্রতিটি ট্রলারে বিপদ সঙ্কেত প্রেরকযন্ত্র রাখা বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। ট্রলারে লাইফ জ্যাকেট এবং পর্যাপ্ত ওষুধ মজুত রাখতেও বলা হয়েছে।

Related Articles

Back to top button