23 Jun 2021, 3:35 AM (GMT)

Coronavirus Stats

30,067,305 Total Cases
391,385 Death Cases
29,034,224 Recovered Cases
খবররাজ্য

আগামী ৬ এপ্রিল রাজ্যের তৃতীয় দফায় ৩১টি আসনে ভোট কাটাকাটিতে অঘটন ঘটতে পারে

রাজকুমার সূত্রধর:
আগামী মঙ্গলবার ৬ এপ্রিল রাজ্যের তৃতীয় দফায় ৩১টি আসনে ভোট
হতে যাচ্ছে। এর ভিতর দক্ষিণ ২৪ পরগনা, হাওড়া ও হুগলি জেলার
একাধিক আসন রয়েছে। নির্বাচন কমিশন প্রতিটি জায়গাতে কড়া
নজরদারির মাধ্যমে শান্তিপূর্ণ ভোট করাতে চাইছে। প্রতিবার কী
লোকসভা, কী বিধানসভা, নির্বাচনে নন্দীগ্রাম ও কেশপুরের মানুষ বোমা-
বন্দুক এর সামনে ভোট হতে দেখেছে। এজন্য অনেকে ভোট দিতে পারেনি।
এবার কিন্তু কমিশন অন্য এক নন্দীগ্রাম ও কেশপুরকে দেখিয়ে দিল।
বিক্ষিপ্ত কিছু ঘটনা ছাড়া একেবারে শান্তিপূর্ণভাবে মানুষ ভোট দিয়েছে।
এই কায়দায় তৃতীয় দফার ভোট করতে চাইছে। কারণ, ৩১ টির ভিতর
দক্ষিণ ২৪ পরগনা, হাওড়া ও হুগলীর যথাক্রমে বাসন্তী, কুলতলি,
জয়নগর, মন্দিরবাজার, রায়দিঘি, ক্যানিং পূর্ব, ক্যানিং পশ্চিম,
মগরাহাট পূর্ব, মগরাহাট পশ্চিম, ডায়মন্ডহারবার, ফলতা, বিষ্ণুপুর,
সাতগাছিয়া, শ্যামপুর, বাগনান, হরিপাল, জাঙ্গিপাড়া, আরামবাগ, গোঘাট
ও খানাকুল এই আসনগুলির একাধিক বুথ চরম স্পর্শকাতর বলে চিহ্নিত
হয়ে রয়েছে। কারণ, অতীতে সমস্ত ভোটে ওই সব আসনে ব্যাপক
গোলামাল হয়েছে। বোমাবাজি ও গুলি চলেছে। মানুষ ঠিকমতো ভোট দিতে
পারেনি। এবার তাই আলাদাভাবে বাড়তি নজর দিয়েছে কমিশন। প্রসঙ্গত,
এর ভিতর ক্যানিং পূর্ব এলাকায় কেন্দ্রীয় বাহিনীকে লক্ষ্য করে ইট
ছোঁড়া হয়েছে। কমিশন বিষয়টি জানাার পর ভয়ঙ্কর চটে গিয়েছে। ওই
ঘটনায় তৃণমূল মদতপুষ্ট ৩ জনকে ধরা হয়েছে। এছাড়াও ওই কেন্দ্রে
ভোটার ছাড়াও বিরোধী দলের লোকজনকে ভয় দেখানো হচেছ বলে কমিশনে
একাধিক অভিযোগ করেছেন। অন্য কয়েকটি জায়গা থেকে এই অভিযোগ
এসেছে। সেই কারণে বাড়তি সতর্কতা হিসেবে বাড়তি নজর দেওয়া হচেছ।
প্রয়োজনে ভোটের দিন গোলামাল হতে পারে এমন সম্ভবনা দেখলেই কড়া
পদক্ষেপ নেওয়া হবে বলে কমিশন সূত্র জানা গিয়েছে।
অন্যদিকে, এই ৩১ টি আসনের অনেকগুলিতে ২০১৯ সালের লোকসভা
বিজেপি ভোট বাড়িয়ে নিয়ে তৃণমূলের ঘাড়ে নিঃশ্বাস ফেলছে। ২০২১ সালের
তৃতীয় দফার ভোটে ওই সব আসনে পদ্ম ও জোড়া ফুলের ভিতর রীতিমতো

টক্কর হবে বলে মনে করছে রাজনৈতিক মহল। আরও একটা ঘটনা হল,
এবার ওই সব আসনে সিপিএম ও সংযুক্ত মোর্চা দল বড় ফ্যাক্টর।
কারণ, ওই দলের জন্য একটি বিশেষ অংশের ভোট কাটাকাটি হয়ে যাওয়ার
সুযোগ তৈরি হয়েছে। যার জেরে তৃণমূলের অনেকটা চাপ হয়ে যাবে। তাতে
বিগত বিধানসভা নির্বাচনে যে যেখানে জয় পেয়েছে, এবার তা বদলে
যাওয়ার সম্ভবনা প্রবল বলে রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের ধারণা।

Related Articles

Back to top button

Notice: ob_end_flush(): failed to send buffer of zlib output compression (0) in /home2/biswasam/public_html/wp-includes/functions.php on line 4757