28 Jul 2021, 1:53 AM (GMT)

Coronavirus Stats

31,484,605 Total Cases
422,054 Death Cases
30,663,147 Recovered Cases
খবরজেলারাজ্য

অপবাদ ঘুচিয়ে কর্মীদের সঙ্গে বৈঠকে শতাব্দী

স্টাফ রিপোর্টারঃ সদ্য সমাপ্ত বিধানসভায় রাজনৈতিক চর্চার অন্যতম মূলকেন্দ্রে ছিলেন তিনি। অনুব্রত গড়েই, কেষ্টর সঙ্গে ঠাণ্ডা লড়াই বজায় রেখেও তাঁর জাজ্বল্যমান উপস্থিতি নজর কেড়েছে রাজনৈতিক মহলের। তিনি বীরভূমের সাংসদ শতাব্দী রায়। বীরভূম থেকে তিন তিনবার সাংসদ হয়েও খোদ তৃণমূল সুপ্রিমোর ‘প্রিয় পাত্রী’-র বিরুদ্ধে অভিযোগ, তিনি নাকি দলের কাজে থাকেন না।

সাংসদ হয়েও বীরভূমের মানুষ দরকারে-অদরকারে তাঁকে পান না। কার্যত সেই ‘অপবাদ’ ঘুচিয়ে দিয়ে নির্বাচন শেষের পর থেকেই বীরভূম চষে বেড়াচ্ছেন অভিনেত্রী সাংসদ। শুক্রবার, দলীয় কর্মীদের সঙ্গে মুরারোইতে বৈঠক করেন শতাব্দী। এদিনের বৈঠকে বীরভূমের উন্নয়ন প্রকল্প সাংসদ তহবিলের বরাদ্দ অর্থ কোন খাতে কীভাবে খরচ করা হবে তার পরিপূর্ণ একটি খতিয়ান তৈরি করেন শতাব্দী।

দীর্ঘদিন ধরে তৈরি না হওয়া রাস্তা কীভাবে তৈরি করা যায়, পাশাপাশি জাতীয় সড়ক মেরামতির জন্য প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ করার কথাও এদিন বৈঠকে আলোচনা করেন তৃণমূল সাংসদ। ভোট পরবর্তী সন্ত্রাস খতিয়ে দেখতে বীরভূমে এসেছে মানবাধিকার কমিশনের কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি দল। সে প্রসঙ্গে শতাব্দী বলেন, “কমিশনের কাছে অনুরোধ এ বিষয়ে নিরপেক্ষ তদন্ত করুন।

কোনও কর্মী সে দলেরই হোক, সে ঘরছাড়া হলে আমাদের খবর দিন, আমরা সেই কর্মীকে ঘরে ফেরাব। এর দায়িত্ব শাসক শিবিরেরই।” এদিনের বৈঠকের মুরারোইয়ের প্রাক্তন প্রয়াত বিধায়ক আবদুর রহমানকেও স্মরণ করেন শতাব্দী।

Related Articles

Back to top button