25 Sep 2021, 12:27 PM (GMT)

Coronavirus Stats

33,624,419 Total Cases
446,690 Death Cases
32,876,319 Recovered Cases
খবররাজ্য

অনাথ করেছে কোভিড, শোকেও অবিচল সিবিএসই দশমের টপার

সংবাদ সংস্থা : সিবিএসই দশম শ্রেণির পরীক্ষায় ৯৯.৮ শতাংশ নম্বর পেয়েছে ভোপালের বনীশা পাঠক ৷ ইংরেজি, সংস্কৃত, বিজ্ঞান ও সমাজ বিজ্ঞানে সে ১০০-র মধ্যে ১০০ নম্বর পেয়েছে ৷ অঙ্কে পেয়েছে ৯৭৷ পড়াশোনায় বরাবরই ভালো বছর ১৬-র মেয়েটি ৷ তবে তার সাফল্যের এই সিঁড়ি যথেষ্ট অমসৃণ ৷

তাতে জড়িয়ে এক রাশ যন্ত্রণা ৷ কারণ কন্যার এই বিরাট সাফল্যের দিনে পাশে নেই তার বাবা-মা ৷ বনীশা যখন পরীক্ষার প্রস্তুতিতে ব্যস্ত, তখনই করোনা ভাইরাস কেড়ে নিয়েছে তার মাথার উপরের ছাতাটাকে ৷ শোকের আবহেও থেমে যায়নি মেয়ের চলার গতি ৷ কারণ তার লক্ষ্য ছিল, বাবা-মায়ের স্বপ্নপূরণ ৷বনীশার মা সীমা পাঠক ছিলেন স্কুল শিক্ষিকা আর বাবা জীতেন্দ্র পাঠক আর্থিক পরামর্শদাতা হিসেবে কাজ করতেন ৷ গত এপ্রিল মাসে তাঁরা দু‘জনেই কোভিডে আক্রান্ত হন ৷ শারীরিক অবস্থার অবনতি হওয়ায় দু‘জনকেই হাসপাতালে ভর্তি করতে হয় ৷ হাসপাতাল থেকেই ভিডিয়ো কলে প্রতিনিয়ত মেয়েকে সাহস জুগিয়ে গিয়েছেন তাঁরা ৷ বনীশার কথায়, “মায়ের সঙ্গে শেষ যখন কথা হয়, তখন তাঁর অবস্থা খুব একটা ভাল ছিল না ৷ তবে তিনি বলেছিলেন, তুমি পড়াশোনায় ফোকাস করো ৷

নিজের উপর আস্থা রাখো ৷ খুব শিগগিরই আমরা বাড়ি ফিরে আসব ৷” তবে কথা রাখতে পারেননি তিনি ৷বনীশার বাবা হয়তো বুঝতে পেরেছিলেন, যে কোনও সময়ে নেমে আসতে চরম অন্ধকার ৷ কোভিড অনাথ করে দিতে পারে তাঁর সন্তানদের ৷ তবে কোনও অবস্থাতেই যাতে মেয়ের পরীক্ষার প্রস্তুতিতে ঘাটতি না-পড়ে, তা নিশ্চিত করাই লক্ষ্য ছিল তাঁর ৷ তাই তো তিনি মেয়েকে বলেছিলেন, জীবনে ভাল সময় আসে, আবার চলে যায় ৷ খারাপ সময়ও আসে, সেটাও চলে যায় ৷ জীবন কখনও থেমে থাকে না ৷ যেন মৃত্যুকে কাছ থেকে দেখতে পেয়েই মেয়েকে শক্তি জুগিয়েছিলেন জীতেন্দ্রবাবু ৷

Related Articles

Back to top button